twitter

মুম্বই: টুইটারে এক মহিলাকে ‘মোটা’ বলার খেসারত দিতে হল এক বিদেশিকে। ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে সরাসরি শ্লীলতাহানির অভিযোগ দায়ের করলেন ওই মহিলা।

মুম্বই পুলিসের দাদার ডিভিশনের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার সুনীল দেশমুখ বলেন, দাদার নিবাসী ৩২ বছর বয়সী এক মহিলা অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানি এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্মানহানির অভিযোগ এনেছেন।

পুলিশ আধিকারিকদের মতে, আফ্রিকাজাত ওই ব্যক্তি টুইটারে নিজের মত প্রকাশ করে বলেন যে “মোটা মানুষদের বেঁচে থাকার কোনো অধিকার নেই।” এই নিয়ে বিতর্ক ক্রমশ বাড়তে থাকে। এই বিতর্ক চলাকালীনই ‘কমেন্ট’-এর মাধ্যমে নিজের মতামত জানান ওই অভিযোগকারিণী। এর পরেই টুইটারেই দু’জনের মধ্যে তীব্র বাদানুবাদ শুরু হয়। দু’জনেই নিজের মতের স্বপক্ষে যুক্তি দেন।

শিবাজি পার্ক পুলিশ স্টেশনের এক আধিকারিক বলেন, “দু’জনের মধ্যে বাদানুবাদ ক্রমশ বাড়তে থাকে।” ওই আধিকারিকের কথায়, “ওই মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে, অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।”

টুইটার আইডি যাচাই করে পুলিশ এখন অভিযুক্ত ব্যক্তির পরিচয় জানার চেষ্টা করছে। আপাতত সাইবার সেল বিভাগে এই মামলাটি স্থানান্তরিত করবে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here