ফের দিল্লির অমানবিক মুখ, রাস্তায় কুপিয়ে খুন যুবতীকে

0

সকালের ব্যস্ত রাস্তা। হঠাৎ এক ব্যক্তি মোটরবাইকে করে এসে এক যুবতীর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ল। তাঁকে ছুরি দিয়ে আঘাত করে যেতে লাগল। যতক্ষণ না ছটফটানি থেমে যায়। ডজন খানেক লোক সেই দৃশ্যের সাক্ষী থাকল। কিন্তু কেউ বাধা দিতে এল না। আরেকবার রাজধানী দিল্লির অমানবিক চেহারাটা প্রকাশ্যে চলে এল।

ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার সকালে উত্তর দিল্লির বুরারি এলাকায়। হত্যাকারী সন্দেহে সুরেন্দর সিংকে পরে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, আক্রমণকারী ছুরি দিয়ে উপর্যুপরি যুবতীকে আঘাত করে চলেছে। তিনি অসহায় ভাবে ছটফট করছেন। রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়া কেউ কেউ অল্পক্ষণ দাঁড়িয়ে চলে গেলেন। অনেকে দূরে দাঁড়িয়ে দেখতে লাগলেন, কিন্তু যুবতীকে বাঁচাতে এগিয়ে এলেন না। দু’জনকে দেখা গেল, মহিলার দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন, কিন্তু শেষ পর্যন্ত পিছু হটে চলে গেলেন। এক সময় যুবতীর শরীর নিথর হয়ে গেল। কিন্তু আক্রমণকারীর ছুরি মারা থামল না। সে বার তিরিশেক ছুরি মারল যুবতীকে। একটা পাথর তুলে নিয়ে যুবতীর মাথায় আঘাত করল। তার দেহে একটা লাথি মেরে মোটরবাইকে স্টার্ট দিয়ে চলে গেল। পথের ধারে পড়ে রইল যুবতীর নিস্পন্দ দেহ।

নিহত যুবতী পেশায় শিক্ষিকা, বয়স ২১, নাম করুণা। পাঁচ মাস আগেই তাঁর পরিবার থেকে পুলিশের কাছে অভিযোগ করে বলা হয়েছিল, সুরেন্দর সিং নামে ৩৪ বছরের এক প্রতিবেশী তাঁকে নিয়মিত হয়রান করছে। এই অভিযোগের পরেও পুলিশ কেন সুরিন্দরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি, সেটাই প্রশ্ন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দিল্লিতে এই নিয়ে দুটি ঘটনা ঘটল, যেখানে সকলের চোখের সামনে মহিলাদের খুন করা হল, কিন্তু কেউ সাহায্য করতে এগিয়ে এল না। সোমবার দক্ষিণ-পশ্চিম দিল্লির ইন্দ্রপুরী এলাকায় ৩২ বছরের এক বিবাহিতে মহিলাকে এক যুবক কুপিয়ে খুন করে। পরে সে-ও আত্মঘাতী হয়।    

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন