Rape And Murder
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর আরও একটি বিতর্কের মধ্যে জড়ালেন। তাঁর বেফাঁস আরও একটি মন্তব্যই ওই বিতর্কের উৎস। তিনি বলেন, মেয়েরা পুরনো ছেলে বন্ধুদের ফিরে পাওয়ার জন্যই ধর্ষণের মামলা করে।

রাজ্যের একটি জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে শনিবার খট্টর দাবি করেন, সাম্প্রতিক বছরগুলিতে হরিয়ানায় ধর্ষণের মামলার সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। কারণ, আগে এই ধরনের ঘটনা ঘটত আর এখন এই ধরনের ঘটনা ঘটানো হচ্ছে। ফলে ধর্ষণের অভিযোগের সংখ্যাও বেড়ে যাচ্ছে। এর ফলে অযথা উদ্বেগ বাড়ছে।

তথ্য-পরিংসখ্যান-সহ খট্টর ধর্ষণের নেপথ্যে ভিন্ন কারণকে তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ধর্ষণ উদ্বেগের। কিন্তু তার থেকেও উদ্বেগ বাড়াচ্ছে এ বিষয়ে অভিযোগ তুলে ধরার পদ্ধতি। ৮০-৯০ শতাংশ ধর্ষণের অভিযোগের ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে, অভিযুক্ত এবং অভিযোগকারিণী এক-অপরের পরিচিত। তাদের আগে থেকেই সম্পর্ক ছিল। তারা দিনের পর দিন এক সঙ্গে ঘুরে বেড়ায়। তার পর এক দিন নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করে। শেষ পর্যন্ত মহিলা এফআইআর ফাইল করে বলে যে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: বিজেপির করা বিশ্বের সব থেকে বড়ো সমীক্ষা

কংগ্রেসের নেতা রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা এই বক্তব্যকে ‘বিব্রতকর’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেন, “খট্টর সরকারের এই উদ্বেগ আসলে চরম নারী বিরোধী। হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যের নিন্দা করছে কংগ্রেস। ধর্ষণ এবং গণধর্ষণকে আড়াল করতে পুরো দায় মহিলাদের উপর ঠেলে দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী সমগ্র নারীজাতিকেই অপমান করেছেন”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here