নয়াদিল্লি : ভারতীয় ইতিহাসে এমন ঘটনা এই প্রথম। দিল্লি, মুম্বই, কলকাতা, চেন্নাই, চারটি মেট্রো শহরেরই বর্তমান বিচারব্যবস্থার মাথায় রয়েছেন চার মহিলা বিচারপতি। ৩১ মার্চ ইন্দিরা ব্যানার্জিকে মাদ্রাজ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি নিয়োগ করা হয়। আর এর সঙ্গে সঙ্গেই দেশের প্রধান এবং প্রাচীনতম চারটি হাইকোর্টই প্রধান বিচারপতি হিসেবে চার জন মহিলাকে পেল।

এই চার শহরের হাইকোর্টই ভারতে ঔপনিবেশিক শাসনের সময়ে তৈরি হয়েছিল।

কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি নিশিথা নির্মল মাত্রে। ইনি প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব নেন ২০১৬ সালের ১ ডিসেম্বর। কলকাতা উচ্চ আদালতে মহিলা বিচারপতির সংখ্যা ৪, পুরুষ বিচারপতির সংখ্যা ৩৫।

দিল্লি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি জি রোহিনী। ইনি দিল্লি হাইকোর্টের প্রথম মহিলা বিচারপতি। তিনি দায়িত্বভার গ্রহণ করেন ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিল। এই হাইকোর্টের দ্বিতীয় বিচারপতিও হলেন এক জন মহিলা, তিনি বিচারপতি গীতা মিত্তল। এখানে মহিলা বিচারপতির সংখ্যা ৯ আর পুরুষ বিচারপতি ৩৫ জন।

মুম্বই হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুর। ইনি মুম্বই হাইকোর্টের দায়িত্ব নেন ২০১৬ সালের ২২ আগস্ট। এর আগে তিনি প্রধান বিচারপতির দায়িত্বভার বহন করেছেন কলকাতা হাইকোর্টে। মুম্বই হাইকোর্টেরও দ্বিতীয় বিচারপতি এক জন মহিলা, বিচারপতি ভি এম থাইলরামনি। মুম্বই হাইকোর্টে মহিলা বিচারপতির সংখ্যা সবচেয়ে বেশি, ১১ জন আর পুরুষ বিচারপতির সংখ্যা ৬১।

মাদ্রাজ হাইকোর্টে বর্তমানে প্রধান বিচারপতি-সহ মোট ছ’ জন মহিলা বিচারপতি রয়েছেন, যেখানে পুরুষ বিচারপতির সংখ্যা ৫৩।

দেশের সুপ্রিম কোর্টে ২৮ জন বিচারপতির মধ্যে মাত্র এক জন মহিলা বিচারপতি আছেন। তিনি হলেন বিচারপতি আর ভানুমতি।

প্রসঙ্গত, দেশে মোট হাইকোর্টের সংখ্যা ২৪টি। সেখানে বিচারপতিদের মোট সংখ্যাটা ৬৩২। অথচ মহিলা বিচারপতির সংখ্যা সাকুল্যে মাত্র ৬৮ জন।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here