nitin gadkari

ওয়েবডেস্ক: বিলাসে থাকার বাসনা এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে নৌবাহিনীর সদস্যরা আর শহর মুম্বই ছেড়ে অন্য কোথাও নড়তেই চাইছেন না। এই পরিস্থিতি অনেক দিন ধরেই তিতিবিরক্ত করে তুলেছিল বন্দরমন্ত্রী নীতিন গড়করিকে। এক সময় আর থাকতে না পেরে জনসমক্ষেই নৌবাহিনীর এই মনোভাবের তীব্র নিন্দায় সরব হলেন তিনি। সাফ জানিয়ে দিলেন, মুম্বইয়ে তিনি নৌবাহিনীর থাকার জন্য সূচ্যগ্র পরিমাণ জমিও দেবেন না!

বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ে নৌবাহিনীরই এক অনুষ্ঠানে এ কথা জানান গড়করি। সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম নৌবাহিনীর কমান্ড চিফ ভাইস অ্যাডমিরাল গিরিশ লুথরা-সহ উচ্চ পদের অনেক অফিসারই। কিন্তু কোনো কিছুরই তোয়াক্কা না করে গড়করি সমালোচনায় মুখর হয়ে ওঠেন।

“বুঝতেই পারি না, নৌবাহিনীর সবাই কেন পশ্চিম মু্ম্বইয়ের অভিজাত এলাকায় থাকতে চায়! ওটা কি নৌবাহিনীর কাজের জায়গা? নৌবাহিনীর কাজের জায়গা তো সীমান্ত অঞ্চল, যেখান দিয়ে শত্রু অনুপ্রবেশের সম্ভাবনা থাকে। অথচ, সবাই আমায় এসে পশ্চিম মুম্বইয়ে জমি দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। অনেক হয়েছে, আর নয়! আমি নৌবাহিনীকে পশ্চিম মুম্বইয়ে এক ইঞ্চিও জমি দেবো না”, বলেছেন গড়করি। সঙ্গে এ-ও জানাতে ভোলেননি, “আপনারা দয়া করে মুম্বই ছেড়ে পাকিস্তানের সীমান্ত-অঞ্চলে গিয়ে একটু কাজকর্ম করুন দেখি!”

জানা গিয়েছে, গড়করির এই উষ্মার কারণ পশ্চিম মুম্বই অঞ্চলে তৈরি হতে চলা একটি ভাসমান জেটি এবং তৎসলগ্ন ভাসমান রেস্তোরাঁ! এই খবর চাউর হতে না হতেই নৌবাহিনীর নানা স্তর থেকে ওই এলাকায় জমি পাওয়ার জন্য তাঁর কাছে আবেদনপত্র জমা পড়তে শুরু করেছে। ফলে, বিরক্ত হয়ে গড়করি এ বার প্রকাশ্য সমালোচনার পথে নেমে এলেন।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন