আবুধাবি: স্থূলত্ব কমাতে সুদূর আবুধাবি থেকে ভারতে উড়ে এসেছিলেন ‘বিশ্বের সবচেয়ে স্থূলকায়‘ মহিলা ইমন আহমেদ। তখন তাঁর ওজন ছিল ৪৯৮ কেজি। মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে চিকিৎসা হয়েছিল তাঁর। কমেছিল ওজন। চিকিৎসার শেষে মে মাসের গোড়ার দিকে বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন। তার পর মাত্র মাস পাঁচেক বাঁচলেন তিনি। সোমবার আবুধাবিতে একটি হাসপাতালে মারা গেলেন ইমন আহমেদ।

আবুধাবির বুরজিল হাসপাতাল জানিয়েছে, তাঁর হার্ট এবং কিডনি কাজ করছিল না। মুম্বইয়ে চিকিৎসা করিয়ে দেশে ফেরার পর ইমন ২০ জন বিভিন্ন বিভাগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

আরও পড়ুন: মুম্বইয়ের হাসপাতাল ছেড়ে আবুধাবি উড়ে গেলেন ইমন আহমেদ 

মিশরের আলেকজান্দ্রিয়ার বাসিন্দা ইমন আহমেদ মুম্বইয়ে সইফি হাসপাতালে ৮২ দিন চিকিৎসা করান। তাঁর ওজন কমে হয় ২৪২ কিলোগ্রাম। এক সপ্তাহ আগেই তিনি তাঁর ৩৭ বছরের জন্মদিন পালন করেন।

চিকিৎসকদের পরিকল্পনাকে ছাপিয়ে গিয়ে দ্রুত স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসছিলেন ইমন। চিকিৎসকরা ইমনের সুস্থ হয়ে ওঠার ভিডিও প্রকাশ করেছিলেন।

আবুধাবির বুরজিল হাসপাতালের চিফ মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ ইয়াসিন আল সাহাত জানিয়েছেন, দ্বিতীয় ধাপের চিকিৎসার শেষে ইমন নিজে নিজে খেতে পারছিলেন, ইলেকট্রিক হুইল চেয়ারে বসে অল্পস্বল্প ঘুরেও বেড়াতেন।

সইফি হাসপাতালের বেরিয়াট্রিক সার্জারি বিভাগের প্রধান অপর্ণা ভাস্কর যিনি ইমনের চিকিৎসা করেছিলেন তিনি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছেন,‘‘ইমনের মৃত্যু দুঃখজনক। তাঁকে যখন হাসপাতাল থেকে ছাড়া হয়েছিল তাঁর কিডনি ঠিকঠাকই কাজ করছিল। কী সমস্যা হল আমরা তা নিয়ে মন্তব্য করতে পারব না।’’

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন