জেলে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি, জামিনের আবেদন ইয়েস ব্যাঙ্ক প্রতিষ্ঠাতার

0

মুম্বই: অর্থ পাচারের অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পরে বর্তমানে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে রয়েছেন ইয়েস ব্যাঙ্কের (Yes Bank) প্রতিষ্ঠাতা রানা কপুর (Rana Kapoor)। বৃহস্পতিবার জামিনের আবেদনে তিনি দাবি করেন, এ মুহূর্তে তিনি যে পরিস্থিতিতে রয়েছেন, তাতে জেলের মধ্যেই তাঁর করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণের ঝুঁকি রয়েছে।

আইনজীবী সুভাষ যাদবের মাধ্যমে দায়ের করা আবেদনে কপুর দাবি করেন, তিনি দীর্ঘস্থায়ী ইমিউনোডেফিসিয়েন্সি সিনড্রোমে ভুগছিলেন, যার ফলে বার বার ফুসফুস, সাইনাস এবং ত্বকের সংক্রমণ ঘটে।

৬২ বছর বয়সি এই ব্যাঙ্কার গত ১৮ মাস ধরে উচ্চ রক্তচাপ, উদ্বেগ এবং হতাশায় ভুগছেন বলে দাবি করেছেন। এই সমস্ত সমস্যা সমাধানে দীর্ঘদিন ধরে নিজের পরিবারের তত্ত্বাবধানে তাঁর চিকিৎসা চলছে বলে আবেদনে জানানো হয়।

বলা হয়েছে, শৈশবকাল থেকেই হাঁপানির সঙ্গে শ্বাসনালীর বিভিন্ন রোগে তিনি আক্রান্ত। যে কারণে তাঁর সবসময়ই ইনহেলারের প্রয়োজন হয়। ফলে বর্তমান পরিস্থিতিতে তাঁর কারাবাস তাঁকে বড়োসড়ো ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিয়েছে।

আবেদনে আরও বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের জেরে বর্তমান পরিস্থিতিতে তাঁর ফুসফুসের সংক্রমণ এবং এমনকী আবেদনকারীর মৃত্যুর কারণ হতে পারে। কারণ এই রোগটি কম প্রতিরোধক্ষমতা এবং দীর্ঘস্থায়ী শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ভুগতে থাকা ৬০ বছরের বেশি বয়সিদেরই অধিক সংক্রামিত করছে।

আবেদনে বলা হয়েছে, “এই আবেদন জমা দেওয়া হয়েছে এই কারণেই যে, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে ও নিয়ন্ত্রণের জন্য আবেদনকারীকে সাবধানতার সঙ্গে পর্যবেক্ষণ করা এবং তাঁর বাড়ির রান্না করা খাবার গ্রহণ করা প্রয়োজন। আবেদনকারীকে বাড়িতেই থাকতে হবে”।

প্রসঙ্গত, এ মাসের শুরুর দিকে প্রিভেনশন অব মানি লন্ডারিং অ্যাক্ট (পিএমএলএ)-এর আওতায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) কপুরকে গ্রেফতার করে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.