রাজনীতিবিদরা কাজ হারাবেন, আশঙ্কা রামদেবের

Ramdev
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) নিয়ে দেশের প্রায় প্রতিটা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রবিক্ষোভ প্রসঙ্গে আশঙ্কা প্রকাশ করলেন যোগগুরু রামদেব। তিনি শুক্রবার বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা যদি এ ভাবে দল বেঁধে বিক্ষোভে অংশ নেন, তা হলে রাজনীতিবিদরা কাজ হারাবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পড়ুয়াদের উদ্দেশে রামদেব বলেন, “রাজনীতিবিদদের জন্য বিক্ষোভ ছেড়ে দেওয়া উচিত, অন্যথায় রাজনীতিবিদরা বেকার হয়ে পড়বেন”। যদিও তাঁর মন্তব্যের মর্মার্থের শিকড় রয়েছে অন্যত্র। তিনি মোটেই পড়ুয়াদের প্রতিবাদী আচরণকে সমর্থন করে এমন মন্তব্য করেননি। শিক্ষা দিতেই বলেছেন।

রামদেবের কথায়, “অরাজকতা ছড়িয়ে দেওয়া এবং সারাক্ষণ জনগণের বিক্ষোভে জড়িত থাকা কোনো পড়ুয়ার দায়িত্ব নয়”। ছাত্রসমাজও সাধারণ জনগণের আওতায় পড়ে কি না, তা স্পষ্ট না করলেও রামদেব বলেন, “পড়ুয়াদের উচিত তাদের কেরিয়ারের দিকে মনোনিবেশ করা এবং দেশের উন্নয়নে অবদান রাখা”।

আরও স্পষ্ট করে তিনি বলেন, “সব সময় আজাদির স্লোগান আউড়ে যাওয়া পড়ুয়াদের কাজ নয়। বিশেষ করে জিন্নার মতো আজাদির স্লোগান তোলা দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা এবং এটা রাষ্ট্রোদ্রোহের সমান”।

আরও পড়ুন: ফের আদালতে নির্ভয়াকাণ্ডের এক দণ্ডিত

পড়ুয়াদের পাশাপাশি তিনি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির উদ্দেশে বলেন, “তাদের (বিরোধীদের) বুঝতে হবে দেশের মানুষ আগামী ২০২৪ সাল পর্যন্ত দেশ চালানোর দায়িত্ব দিয়েছেন বিজেপিকে। আগামী ২০২৪ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সময় দেওয়া উচিত”।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.