yogi taj

আগরা: তাজমহলকে নিয়ে যাবতীয় বিতর্কের মধ্যেই এই ঐতিহাসিক স্থাপত্য দর্শন করলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তার আগে অবশ্য তাজের পশ্চিম গেটের সামনে স্বচ্ছতা অভিযানে অংশগ্রহণ করেন তিনি।

তাজমহলকে নিয়ে বিজেপি নেতাদের মধ্যে বিতর্কিত মন্তব্য ক্রমশ বাড়ছিল। কারও মতে এটি নাকি ছিল ‘তেজো মহল’ তো কারও মতে এটি ‘বিশ্বাসঘাতক’-এর তৈরি। সেই বিতর্কে জল ঢালতেই তাজমহল দর্শন করার সিদ্ধান্ত নেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার সকালে আগরা বিমানবন্দরে নেমে প্রথমে তাজমহলের পশ্চিম গেটে চলে আসেন তিনি। সেখানে স্বেচ্ছাসেবকদের সঙ্গে স্বচ্ছতা অভিযানে সামিল হন যোগী। এর কিছু পরে রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী রীতা বহুগুণা জোশীকে নিয়ে তাজের মূল সৌধের দিকে এগিয়ে যান তিনি। ‘ভারত মাতা কী জয়’ এবং ‘বন্দেমাতরম’ ধ্বনি দিতে শুরু করেন যোগীর হাজার হাজার সমর্থক।

উল্লেখ্য, যোগীই রাজ্যের প্রথম বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী যিনি তাজমহল দর্শন করলেন। প্রায় ৪৫ মিনিতে তাজে ছিলেন তিনি। ঘুরে দেখেন শাহ জাহান এবং মুমতাজ মহলের সমাধি, তাজ ওরিয়েন্টেশন সেন্টার এবং মুঘল মিউজিয়ামও। এরপর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে যোগী বলেন, “ভারতীয় কর্মচারীদের রক্তমাংস দিয়ে তৈরি হয়েছে তাজ। একে রক্ষা করার দায়িত্ব আমাদের কাঁধে।” এরপর পর্যটকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “প্রতিদিন চল্লিশ থেকে পঞ্চাশ হাজার পর্যটক আগরায় আসেন। আমরা যদি তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করতে পাড়ি তাহলে সেই সংখ্যাটা আড়াই থেকে তিন লক্ষে যেতে পারে।”

এরপর বিরোধীদের উদ্দেশে তোপ দাগেনও তিনি। যোগী বলেন, “এতদিন পর্যন্ত জাত এবং ধর্মের ভিত্তিতে যারা সমাজকে ভাগ করেছে তারাই আমার আগরা ভ্রমণের ওপর প্রশ্ন করছে।”

তাজ দর্শনের পাশাপাশি পর্যটনের প্রসারে কিছু প্রকল্পের ঘোষণাও এদিন করেন যোগী। তাজমহল থেকে আগরা ফোর্ট পর্যন্ত বিশেষ রাস্তার শিলান্যাস করেন আদিত্যনাথ। তাজমহলের উন্নয়নে ইতিমধ্যেই ৩৭০ কোটি টাকার প্রকল্পের ঘোষণা করেছিলেন আদিত্যনাথ।

যাবতীয় বিতর্কের আগুনে জল ঢালার জন্যই তাজ দর্শন করলেন যোগী, এমনই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here