ওয়েবডেস্ক: পুরনো আইন সংশোধন করে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে থাকা ২২ বছর আগেকার মামলা তুলে নিল উত্তর প্রদেশ সরকার। যোগী আদিত্যনাথ অবশ্য জানিয়েছেন, রাজনীতিবিদদের ওপর থেকে ‘তুলনামূলক কম গুরুত্বপূর্ণ’ প্রায় ২০০০০ মামলা তুলে নেওয়া হবে সংশোধিত আইনে। সমাজবাদী পার্টির অভিযোগ, বিজেপির সদস্যদের ওপর থেকে মামলা তুলে নেওয়ার লক্ষ্যেই নিজেদের স্বার্থে ‘উত্তর প্রদেশ অপরাধ আইন’ সংশোধিত করল যোগী আদিত্যনাথ সরকার।

১৯৯৫ সালে আইন না মেনে অবৈধ ভাবে গোরখপুরে নিজের বাসভবনে জনসভা আয়োজন করার অভিযোগ ছিল আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে। কেন্দ্রের প্রতিমন্ত্রী শিবপ্রতাপ শুক্লা এবং শীতল পাণ্ডেও অভিযুক্ত রয়েছেন ওই মামলায়। একই আইনের আওতায় দীর্ঘদিন ধরে মামলা চলছিল রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব মৌর্যের বিরুদ্ধেও। ২০১৭-এর সংশোধিত অপরাধ আইন-এ রাজ্যের প্রভাবশালী রাজনীতিবিদদের ওপর থেকে এ ধরনের মামলা তুলে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই। উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের কী মত এই ব্যাপারে? “আদিত্যনাথকে দিয়ে শুরু হল। এবার একে একে বিজেপির সব নেতাদের ওপর থেকে তুলে নেওয়া হবে যাবতীয় মামলা”, জানিয়েছেন শ্রী যাদব।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ভারতের রাজ্যগুলির মধ্যে রাজ্যের আইন প্রণেতাদের বিরুদ্ধে থাকা মামলার তালিকায় এক নম্বরে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। চলতি বছরের মার্চ মাসে আয়োজিত এক সমীক্ষা বলছে, সে রাজ্যে ৪০২জন আইন প্রণেতার ১২৬ জন বিধায়কের বিরুদ্ধেই ফৌজদারি আইনে কোনো না কোনো মামলা রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here