yogi adityanath madrassas

লখনউ: মাদ্রাসা বন্ধ করে দিলেই মুসলিমদের উন্নয়ন হবে না, প্রয়োজন মাদ্রাসাগুলির আধুনিকীকরণের। বৃহস্পতিবার লখনউয়ে একটি সংখ্যালঘু বিষয়ক অনুষ্ঠানে এমনই বললেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

মাদ্রাসাগুলি বন্ধ করে দেওয়ার দাবি নিয়ে কিছুদিন আগেই আদিত্যনাথ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে চিঠি দিয়েছিলেন শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের প্রধান ওয়াসিম রিজভি। মাদ্রাসাগুলি ‘জঙ্গিদের জন্ম দেয়’ এমন অভিযোগ ছিল তাঁর। তবে সেই দাবিতে তাঁর যে সমর্থন নেই সে কথাই এ দিন জানিয়ে দিলেন যোগী।

আদিত্যনাথ বলেন, “মাদ্রাসাগুলি বন্ধ করে দেওয়া কোনো সমস্যার সমাধান হতে পারে না। বরং আমাদের উচিত মাদ্রাসাগুলিকে কী ভাবে আধুনিকীকরণ করা যায় সেই দিকে নজর দেওয়া। এমনকি সংস্কৃত স্কুলগুলিরও আধুনিকীকরণ প্রয়োজন। মাদ্রাসাগুলিতে কম্পিউটারও চালু কড়া উচিত। মুখে সংখ্যালঘু উন্নয়নের কথা বললেই চলবে না। আমাদের অনেক কিছু করতেও হবে।”

যোগী বলেন, শুধুমাত্র সংখ্যালঘুদের উন্নয়নের কথা ভেবেই কেন্দ্রের ‘স্কিল ডেভেলপমেন্ট’ প্রকল্পটি চালু করা হয়েছে। তিনি বলেন, “আমাদের শরীরের কোনো অঙ্গ যদি কাজ কড়া বন্ধ করে দেয়, আমরা তাহলে বিকলাঙ্গ হয়ে পড়ি। ঠিক তেমনই কোনো মানুষ যদি সামাজিক বৈষম্যের শিকার হয় তা হলে তিনি নিজেকে অবহেলিত ভাবতে পারেন।”

কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নাকভি ছাড়াও এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উত্তরের ন’টি রাজ্যের সংখ্যালঘু উন্নয়ন দফতরের মন্ত্রীরা। সংখ্যালঘুদের উন্নয়নে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য নাকভিকে ধন্যবাদ দেন আদিত্যনাথ।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন