নয়াদিল্লি: কিছু দিন আগে যমুনা-তীরবর্তী অঞ্চলকে ক্ষতিগ্রস্ত করার যাবতীয় দায় কেন্দ্র এবং জাতীয় পরিবেশ আদালতের ওপর চাপিয়েছিলেন আর্ট অফ লিভিং-এর প্রতিষ্ঠাতা শ্রীশ্রী রবিশঙ্কর। এর পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার রবিশঙ্করকে তীব্র ভর্ৎসনা করল পরিবেশ আদালত।

পরিবেশ আদালতের চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র কুমারের নেতৃত্বে একটি বেঞ্চ এ দিন রবিশঙ্করের উদ্দেশে বলে, “আপনার কি কোনো দায়িত্বজ্ঞান নেই। যা খুশি তাই বলার অধিকার আপনাকে কে দিয়েছে!”

উল্লেখ্য যমুনা-তীরবর্তী অঞ্চল ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার জন্য পরিবেশ আদালতকেই দায়ী করে গত ১৮ এপ্রিল রবিশঙ্কর বলেছিলেন যে আর্ট অফ লিভিং-কে অনুষ্ঠান করার অনুমতি দিয়েছিল পরিবেশ আদালত। সুতরাং যমুনার কোনো ক্ষতি হলে তার দায় পরিবেশ আদালতেরই। সেই সঙ্গে রবিশঙ্করের অভিযোগ ছিল য, যমুনা যদি এতটাই ভঙ্গুর এবং পবিত্র হয়, তা হলে তাদের অনুষ্ঠান করার অনুমতি দেওয়া হল কেন? রবিশঙ্কর নিজের এই বক্তব্য তাঁর ফেসবুক পেজে দিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন:শ্রীশ্রী-র উৎসবে যমুনা-তীরের ক্ষতি পূরণ করতে দশ বছর লাগবে, রিপোর্ট বিশেষজ্ঞ কমিটির

রবিশঙ্করের এমন মন্তব্যের পরেই ক্ষিপ্ত পরিবেশ আদালত এই কথা বলেছে। এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ঠিক হয়েছে ৯ মে।

উল্লেখ্য, কিছু দিন আগেই পরিবেশ আদালতে একটি রিপোর্ট জমা দেয় বিশেষজ্ঞ প্যানেল। সেখানে তারা জানায়, যে গত বছর আর্ট অফ লিভিং আয়োজিত বিশ্ব সাংস্কৃতিক উৎসবে যমুনা তীরবর্তী অঞ্চলের যা ক্ষতি হয়েছে তা পুনরুদ্ধার করতে অন্তত দশ বছর সময় লাগবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here