কালো টাকা আটকাতে সোনার গয়নার ওপর কর ধার্য করবে কেন্দ্র – এমনটাই শোনা যাচ্ছিল কয়েক দিন ধরে। তা-ই নিয়ে নানা রকম আশঙ্কার ঝড় বয়ে যচ্ছিল সাধারণ মানুষের মধ্যে। অবশেষে বৃহস্পতিবার সরকারের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হল, আশঙ্কার কোনো কারণ নেই। ন্যায়সম্মত ও ঘোষিত আয়ের অর্থে কেনা, উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত, সংসারে মহিলাদের টাকা জমিয়ে কেনা, কৃষিকাজ থেকে আয় করা টাকায় কেনা সোনার গয়নার ওপর কর বসানো হবে না।

চলতি সপ্তাহে লোকসভায় আয়কর আইন সংশোধনী বিল পেশ করা হয়। তাতে বলা হয়, অঘোষিত অর্থের ও সম্পত্তির খোঁজ পেলে তার জন্য ৮৫% কর ও জরিমানা দিতে হবে। এর পরই গুজব ছড়াতে শুরু করে। এর প্রেক্ষিতে সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্ট ট্যাক্স (সিবিডিটি)-এর তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়, গয়নার ওপর কর চাপানোর কোনো উদ্দেশ্য সরকারের নেই। তাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ঘোষিত আয়ের টাকায় কেনা গয়না, কৃষিকাজ বা ওই জাতীয় জীবিকা থেকে আয় করা টাকায় কেনা, উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত বা সংসারে জমানো অর্থের বিনিময়ে কেনা গয়না কখনোই এই ধারার কবলে পড়বে না। এই সব গয়নার ওপর সরকার কোনো কর ধার্য করবে না।

সিবিডিটি জানিয়েছে, আয়কর দফতর হানা দিয়ে যদি কোনো বিবাহিত মহিলার ৫০০ গ্রাম, অবিবাহিত মহিলার ২৫০ গ্রাম আর কোনো পুরুষের ১০০ গ্রামের মধ্যে সোনার গয়না ও অন্যান্য গয়না পরিমাণ উদ্ধার করে, তা হলে তা বাজেয়াপ্ত করা হবে না। আবার অন্য দিকে ন্যায়সম্মত গয়নার পরিমাণ যা-ই হোক না কেন তা সম্পূর্ণ সুরক্ষিত।

সংসদের বিবেচনার জন্য আয়কর আইনের ১১৫বিবিই ধারাটির সংশোধনী বিল পেশ করা হয়েছে। এই বিলে কালো টাকার মালিকদের ৬০% কর ও ২৫% সারচার্জ দিতে বাধ্য করার কথা বলা হয়েছে। এই সমস্তটাই চালু হবে কেবলমাত্র সেই সব মানুষের ওপর যারা ব্যবসা বা অন্যান্য ক্ষেত্র থেকে আয় করেছে কিন্তু সেই টাকার হিসেব আয়কর দফতরের কাছে জমা দেয়নি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here