নয়াদিল্লি: নয়াদিল্লি: তেরো বছর পর ফের নোবেল চুরির ঘটনা। তবে আসল নোবেল নয়, খোয়া গিয়েছে নোবেলের মানপত্র। ঘটনাটি ঘটেছে নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী কৈলাশ সত্যার্থীর বাড়িতে। সোমবার শেষ রাতে তাঁর দিল্লির বাড়িতে এই চুরি হয়। চুরি গেছে তাঁর বেশ কিছু মূল্যবান সামগ্রীও।

মঙ্গলবার সকালে কৈলাশ সত্যার্থীর সংগঠনের এক কর্মী চুরির ঘটনাটি জানতে পারেন। দিল্লির কালকাজি পুলিশ স্টেশনে চুরির অভিযোগ দায়ের করেছেন সত্যার্থী।  উল্লেখ্য, প্রোটোকল অনুযায়ী আসল নোবেল পুরস্কারটি রয়েছে রাষ্ট্রপতি ভবনে। এই মুহূর্তে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন সত্যার্থী।

ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। ৩৮০ ধারায় মামলা রজু করা হয়েছে। এলাকার সমস্ত সমাজবিরোধীকে আটক করা হয়েছে। পুলিশের সন্দেহ নোবেল চুরি করার উদ্দেশ্যেই সত্যার্থীর বাড়িতে হানা দিয়েছিল চোরেরা। ঘটনার ফলে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে অলকানন্দা এলাকায়।   

শিশু অধিকার কর্মী কৈলাশ সত্যার্থী ২০১৪ সালে নোবেল শান্তি পুরস্কার পান। ‘বচপন বাঁচাও আন্দোলন’-এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সত্যার্থী দীর্ঘদিন ধরে শিশুশ্রমের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছেন।  

kailash_noble

২০০৪ সালে চুরি যায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নোবেল পুরস্কার। গীতাঞ্জলি কাব্যের জন্য ১৯১৩ সালে নোবেল পান কবিগুরু। তাঁর পদকটি রাখা ছিল শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতীর জাদুঘরে। সেখান থেকেই পদকটি খোয়া যায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন