নয়াদিল্লি: এক হাজার টাকার নতুন নোট বাজারে ছাড়ার পরিকল্পনা করে ফেলেছে কেন্দ্রীয় সরকার এবং রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। সরকারের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে এই খবর দিয়েছেন। তবে এই নোট ঠিক কবে চালু করা হবে তা তিনি জানাতে পারেননি।

ওই আধিকারিক জানান, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ইতিমধ্যেই নতুন ১০০০ টাকার নোট ছাপানোর কাজ শুরু করে দিয়েছে। আগে পরিকল্পনা ছিল, জানুয়ারিতেই এই নোট বাজারে এসে যাবে। কিন্তু ৫০০ টাকার নোট ছাপানোর প্রয়োজন বেশি থাকায়, হাজার ছাপানোর কাজ পিছিয়ে গিয়েছে।

বিমুদ্রাকরণের জেরে ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল হওয়ার পর বাজারে আসে নতুন ৫০০ ও ২০০০ টাকার নোট। তাতে নতুন নকশা, সুরক্ষা সংক্রান্ত নানা বৈশিষ্ট্য। পিছনে মঙ্গলযানের ছবি। বাতিল হয়ে যাওয়া ১৫.৪৪ লক্ষ কোটি টাকার পরিবর্ত হিসাবে বাজারে ঢুকতে থাকে নতুন ৫০০ ও ২০০০-এর নোট। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ডেপুটি গভর্নর আর গান্ধী ৮ ফেব্রুয়ারি জানান, ২৭ জানুয়ারির হিসাবমতো, ৫০০, ২০০০ এবং চালু অন্যান্য মানের নোট ধরে বাজারে সব মিলিয়ে যে পরিমাণ নোট চালু আছে তার মোট মূল্য ৯.৯২ লক্ষ কোটি। বাজারে মোট কত মূল্যের ৫০০ ও ২০০০ টাকার নোট ছাড়া হয়েছে, তা জানায়নি রিজার্ভ ব্যাঙ্ক।

২০ ফেব্রুয়ারি থেকে সেভিংস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তোলার পরিমাণ বাড়িয়ে ৫০ হাজার করা হয়েছে। ১৩ মার্চ থেকে এ ব্যাপারে আর কোনো ঊর্ধ্বসীমা থাকবে না। সুতরাং বাজারে নগদ টাকার চাহিদা বাড়বে।  

১০০০ টাকার নোট আবার চালু করার ব্যাপারটি জানতে চেয়ে কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর তরফ থেকে মেল করা হয়েছিল। কিন্তু ওই মেলের কোনো জবাব আসেনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন