আঙ্কারা: তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় একটি ফটো প্রদর্শনীতে বক্তব্য পেশ করার সময় আততায়ীর গুলিতে মারা গেলেন, সে দেশে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আন্দ্রেই কারলভ। আততায়ী তুরস্কের এক পুলিশকর্মী। তবে, গুলি চালানোর সময় তিনি ডিউটিতে ছিলেন না। ২২ বছর বয়সি আঙ্কারার ওই পুলিশকর্মী পেছন থেকে গুলি করেন কারলভকে।

গুলি করার পর, প্রদর্শনীতে উপস্থিত ব্যক্তিদের নিরাপদে বেরিয়ে যেতে দেয় ওই ব্যক্তি। তারপর প্রদশর্নীকক্ষের  মধ্যে তার সঙ্গে গুলির লড়াই শুরু হয় নিরাপত্তাকর্মীদের। গুলির লড়াইতে মৃত্যু হয় আততায়ীর। গুলি চালাকালীন আহত হন প্রদর্শনীতে উপস্থিত ৩ ব্যক্তি। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

andrei-karlov-shot-dead

 


কারলভকে হত্যা করার পর আততায়ী বলতে থাকে, “আলেপ্পো-কে ভুলো না। সিরিয়া-কে ভুলো না”। হাতে বন্দুক নিয়ে সে বলে চলে, “যারা যারা ওই অত্যাচার চালাচ্ছে, তাদের সকলকে মূল্য চোকাতে হবে। একে একে।…একমাত্র মৃত্যুই আমাকে এখান থেকে সরাতে পারবে”।


সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে মস্কোয় রাশিয়া, তুরস্ক ও ইরানের বিদেশমন্ত্রকের আলোচনার একদিন আগেই এই হামলার ঘটনা ঘটল। তবে কারলভের মৃত্যুতে ওই আলোচনা স্থগিত হচ্ছে না।

সাম্প্রতিক কালে বারবার সন্ত্রাসবাদী হামলার শিকার হয়েছে তুরস্ক। কিছুদিন আগেই মধ্য তুরস্কের কেসেরিয়ন শহরে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে ১৩ জন সেনা জওয়ানের মৃত্যু হয়, আহত হন ৫৫ জন। এক সপ্তাহ আগে, ইস্তানবুলে জোড়া বিস্ফোরণে ৪৪ জনের মৃত্যু হয়, তার মধ্যে ৩৭ জন ছিলেন পুলিশকর্মী।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here