কলকাতা:  বিমুদ্রাকরণের প্রভাবে এ বছর কলকাতা বইমেলায় টাকার অঙ্কে বই বিক্রির পরিমাণ বেশ কমেছে। খুচরো বিক্রির নিরিখে যে বইমেলা বিশ্বের সর্ব বৃহৎ মেলা, সেই মেলায় বিক্রি ২০ শতাংশ কমেছে বলে গিল্ডের তরফে জানানো হয়েছে।

বইমেলার সংগঠক পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব চট্টোপাধ্যায় মেলার শেষ দিন রবিবার সাংবাদিকদের বলেন, গতকাল রাত পর্যন্ত মেলায় বই বিক্রির পরিমাণ ছিল ১৬ কোটি টাকার মতো। এই পরিমাণ গত বছরের তুলনায় ২০ শতাংশ কম। ত্রিদিববাবু জানান, গত বছর মেলার শেষ ঘণ্টা পর্যন্ত বই বিক্রির পরিমাণ ছিল ২৫ কোটি টাকা।

ত্রিদিববাবু বলেন, ক্ষতির পরিমাণ আরও হয়তো বেশি হত, যদি গিল্ড এবং সহযোগী ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া মেলায় খুচরো টাকা জোগান দেওয়ার ব্যাপারে নানা ব্যবস্থা না নিত।

তবে বিমুদ্রাকরণের ফলে বই বিক্রির পরিমাণ কমলেও বইপ্রেমীর সংখ্যা কিন্তু কমেনি। কলকাতা শহর ছাড়াও তাঁরা এসেছেন দূরদূরান্ত থেকে। রোজই মেলায় উপচে পড়েছে ভিড়।

আগামী বছর ৪২তম কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলা শুরু হবে ৩১ জানুয়ারি, চলবে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ফ্রান্স ‘বন্ধু দেশ’ হবে বলে জানান ত্রিদিববাবু। তিনি জানান, এ বার মেলার ‘থিম কান্ট্রি’ ছিল কোস্তা রিকা। সামনের বারের অতিথিরা চেয়েছেন ‘থিম কান্ট্রি’ না বলে ‘ফ্রেন্ড কান্ট্রি’ বলা হোক। গিল্ড এই প্রস্তাব মেনে নিয়েছে।

রবিবার রাত ৯টায় ঘণ্টাধ্বনির মাধ্যমে ৪১তম মেলার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন