কলকাতা : ভোট বড়ো বালাই, তাই পরীক্ষা স্থগিত।

ছাত্র সংসদের ভোটের কারণে সেমেস্টারের লিখিত পরীক্ষা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত  নিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।  ২ জানুয়ারি থেকে ২৮ জানুয়ারির  মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে একাধিক বিষয়ে লিখিত পরীক্ষা হওয়ার কথা। ২৮ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ছাত্র সংসদের ভোট।  সুষ্ঠু ভাবে ভোটপর্ব সমাধা করার জন্য ভোটকে কেন্দ্র করে একাধিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হয়। সেই কারণেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষা নিয়ামক সুজিত বড়ুয়া এ ব্যাপারে একটি  নির্দেশিকা জারি করে সব কিছু জানিয়ে দিয়েছেন।  সুজিতবাবু জানিয়েছেন, বেশ কিছু বিভাগ সেমেস্টারের  ভিত্তিতে পরীক্ষা নেয়।  ওই সময়ের মধ্যে যে সমস্ত পরীক্ষা হওয়ার কথা সেগুলি স্থগিত রাখা হয়েছে। পরীক্ষার নতুন দিন পরে ঘোষণা করা হবে।  
কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি কুটার তরফে এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা হয়েছে।  কুটার সাধারণ সম্পাদক রামপ্রসাদ প্রহ্লাদ চৌধুরী জানান, এ ভাবে পরীক্ষা পিছিয়ে দিলে অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার নষ্ট হবে।  দেরি হবে ফল প্রকাশেও।  পরের সেমেস্টারের  ফল প্রকাশেও সমস্যা হবে।  এক মাস পরীক্ষা পিছিয়ে গেলে পরের সেমেস্টারের জন্য পড়ুয়ারা সময় কম পাবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের এই নির্দেশিকায় অনেক ছাত্রও খুশি নন। ভোটের জন্য পরীক্ষায় ব্যাঘাত ঘটায় তাঁরা অনেকেই ক্ষুব্ধ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here