মানুষ ভেদে জল খাওয়ার অভ্যাস ও পরিমাণ আলাদা হয়। সাধারণ ভাবে দিনে তিন লিটার জল খাওয়ার কথা বলা হয়। তবে খুব বেশি জল খেয়ে ফেলাও মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যে মানুষ কম জল খান, অসুস্থ হলে তার জল খাওয়ার পরিমাণ হঠাৎ বাড়িয়ে দেওয়া উচিত নয়। তাতে হিতে বিপরীত হয়।

অসুস্থ হলে দ্বিগুণ নয় অন্তত পক্ষে অভ্যাসের ১৫০% জল খাওয়া দরকার বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক মারিয়ান নরনহা। তিনি বলেন, মানুষের প্রবণতা থাকে অসুস্থ হলে বেশি জল খাওয়ার। কিন্তু সেটা ঠিক নয়। দ্রুত ডি-হাইড্রেটেড হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।


মানুষের প্রবণতা থাকে অসুস্থ হলে বেশি জল খাওয়ার। কিন্তু সেটা ঠিক নয়।


শারীরিক ও মানসিক সুস্থতা ও নিজেকে চাঙ্গা রাখার জন্য পর্যাপ্ত জল খাওয়া দরকার আর শরীরে তরলের পরিমাণও ঠিক রাখা দরকার। তাছাড়া মলমূত্র স্বাভাবিক রাখতে এবং গোটা প্রণালীটিকে সুস্থ রাখতে শরীরে পর্যাপ্ত তরলের জোগান থাকা দরকার। বিশেষত যখন কেউ অসুস্থ থাকেন সেই সময়।

পাবলিক হেলথ ইংল্যন্ডের মতে, প্রতিদিন মানুষের কমপক্ষে ৬ থেকে ৮ গ্লাস তরল পানীয় খাওয়া উচিত। তার মধ্যে থাকতে পারে জল, হেলথ ড্রিঙ্ক, শর্করা-বর্জিত পানীয়, চা-কফি ইত্যাদি।

তবে তরল খাদ্য, জল খাওয়ার পরিমাণ কতটা হওয়া দরকার তা ঠিক করা উচিত চিকিৎসক বা বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলার পর।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here