Cholai-wine

সমীর মাহাত, ঝাড়গ্রাম: চোলাই মদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হল ঝাড়গ্রামে। জেলার সর্বত্রই এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়েছে প্রশাসনের তরফে।ইতিমধ্যেই ২৩ অক্টোবর মঙ্গলবার রাতে ঝাড়গ্রাম থানা এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রামে অভিযান চালিয়ে বেআইনি মদ ও মদ তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে আবগারি বিভাগ l

Cholai-wine

ওই দিন রাত ৮টা থেকে ১টা পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হয় বলে প্রশাসন সুত্রে জানা গিয়েছে। ঝাড়গাম ব্লকের বাঁদরভোলা, কলাবনি, চাকুয়া, কেন্দুয়া, বাঘঝাপা প্রভৃতি গ্রামে অভিযান চালায় আবগারি বিভাগ l একই ভাবে ওই দিন বিনপুর থানার কই, ধরমপুর, শিলদা এবং বেলপাহাড়ি থানার চাকাডোবা, বাঁশপাহাড়ি এলাকাতেও অবৈধ মদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে ওই দিন মোট ১৩০ লিটার মদ বাজেয়াপ্ত করেছে আবগারি বিভাগের কর্মীরা ।সঙ্গে বেশ কিছু মদ তৈরির সরঞ্জাম ও উদ্ধার করা হয়েছেl আবগারি দফতরের এক আধিকারিক জানান, এই অভিযান লাগাতার চলতে থাকবেl পাশাপাশি এ ঘটনায় ভিন্ন মত পোষণ করেছে সংশ্লিষ্ট মহল।

মূর্তিপুজো হয় না, তবুও লক্ষ্মীপুজোয় হয় ‘ঠাকুর আনা’!

একাংশের মতে, সরকার ঘোষণা করেছে গ্রামে গ্রামে সরকারি মদের দোকান তৈরি হবে। তার মানে সরকারি মদ বিক্রিতে সরকারের রাজস্ব বাড়বে, চোলাই মদ বহু প্রাচীন গ্রামীণ কুটিরশিল্প। নিজেরাই তৈরি করে, বিক্রি করে। মাঝখান থেকে সরকার কোনো রাজস্ব পায় না। সমস্য বলতে এটুকুই। বরং চোলাই মদ ও স্বীকৃত মদের উচ্ছেদ নিয়ে বিভিন্ন এলাকার মহিলারা সরব হয়েছে। ঝাড়গ্রাম শহরেও সম্প্রতি এই নিয়ে প্রতিবাদ সভা হয়েছে। এটা কি প্রশাসনের নেতিবাচক পদক্ষেপ নয়, এমন প্রশ্নও তুলেছেন একাংশ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here