Connect with us

রাজ্য

কলকাতার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গের দুই জেলার করোনা-পরিস্থিতি

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এখনও পর্যন্ত রাজ্যে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড তৈরি হল বুধবার। তবে কলকাতায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই কমেছে। যদিও উত্তরবঙ্গের দুই জেলায় করোনা-আক্রান্তের সংখ্যায় উদ্বেগজনক বৃদ্ধি এসেছে। তবে স্বস্তির খবর, সুস্থতার সংখ্যায় রেকর্ড তৈরি হয়েছে আর মৃত্যুহার আরও অনেকটাই কমে গিয়েছে।

রাজ্যের করোনা-তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১,৫৮৯ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৪,৪২৭। কুড়ি জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা এক হাজার ছুঁয়েছে।

তবে এক দিনে ৭৪৯ জন করোনামুক্ত হয়েছেন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২০,৬৮০ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার এখন রয়েছে ৬০.০৬ শতাংশে। মৃত্যুহারে কমে এসেছে ২.৯০ শতাংশে।

কলকাতায় কমল নতুন আক্রান্তের সংখ্যা

কলকাতায় করোনায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বেশ কিছুটা কমেছে। এ দিন নতুন করে ৪২৫ জন আক্রান্ত হওয়ায় শহরে মোট করোনারোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০,৯৭৫। তবে শহরে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬,১৪৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ৫২৫ জনের। কলকাতায় এখন সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৪,৩০৪ জন।

উত্তর ২৪ পরগণা আর দক্ষিণ ২৪ পরগণায় নতুন করা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪৭ আর ১৭৪ জন। এই দুই জেলা মিলিয়ে এক দিনে সুস্থ হয়েছেন ২১৩ জন। দক্ষিণ ২৪ পরগণায় কারও মৃত্যু না হলেও উত্তরে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ ছাড়া হাওড়ায় ১৫১ আর হুগলিতে ৭৪ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

পূর্ব মেদিনীপুরে উদ্বেগের ছবি

পূর্ব মেদিনীপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬০ জন। এ ছাড়া দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় করোনা-পরিস্থিতির বিশেষ কোনো পরিবর্তন হয়নি। ঝাড়গ্রাম এখনও করোনামুক্ত রয়েছে।

মুর্শিদাবাদ (১৭) আর নদিয়া (১০) ছাড়া দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা দশের কম।

মালদায় আক্রান্ত শতাধিক

মালদা আর দার্জিলিং এখন উত্তরবঙ্গের মূল মাথাব্যাথার কারণ। মালদায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১২১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, এখনও পর্যন্ত যা সর্বোচ্চ। এই জেলায় সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৫৩৬ জন।

দার্জিলিংয়ে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৪ জন, যার সিংহভাগই শিলিগুড়ি শহরের বাসিন্দা। এই জেলাতেও মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার পেরিয়ে গেল। দার্জিলিংয়ে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩৭০ জন। এর পাশাপাশি দক্ষিণ দিনাজপুরে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪ জন। উত্তরবঙ্গের বাকি জেলায় অবশ্য পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

নমুনা পরীক্ষার তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ১২ হাজারের কাছাকাছি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট ৬ লক্ষ ৪৯ হাজার ৯২৮টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। রাজ্যে এখন প্রতি এক হাজার মানুষে ৭,২২১ জনের নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে।

রাজ্য

বেসরকারি বাস-মিনিবাসের একাধিক কর মকুব করল নবান্ন

প্রতীকী ছবি

কলকাতা: করোনাভাইরাস মহামারির (Coronavirus pandemic) মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই বাস-মিনিবাস চলছে। সীমিত সংখ্যক যাত্রী পরিবহণ করে লোকসানের মুখে পড়তে হচ্ছে বলে জানিয়ে রাজ্য সরকারের কাছে বিশেষ আবেদন নিয়ে দরবার করে বাস মালিকদের সংগঠন। আবেদনগুলি খতিয়ে দেখে বৃহস্পতিবার নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে কর মকুবের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

মুখ্যমন্ত্রীর পাশে বসে রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ওয়েস্ট বেঙ্গল মোটর ভেহিক্যালস অ্যাক্ট অনুযায়ী, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত নয়, অর্থাৎ নন-এসি বাস-মিনিবাসের যে ট্যাক্স ধার্য্য করা হয়, সেটা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মকুব করা হল। ১ এপ্রিল, ২০২০ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ পর্যন্ত এই বাস-মিনিবাসের ক্ষেত্রে যা ট্যাক্স হয়, সেটা মকুব করা হল।

দ্বিতীয়ত, ওয়েস্ট বেঙ্গল অ্যাডিশনার ট্যাক্স যেটা রয়েছে, সেটাও এই সময়সীমার জন্য মকুব করা হল।

তৃতীয়ত, এই পুরো বছরের জন্য ওয়েস্ট বেঙ্গল মোটর ভেহিক্যালস রুলস অনুযায়ী যে পারমিট ফি নেওয়া হয়, সেটাও মকুব করা হল বলে জানান স্বরাষ্ট্রসচিব।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, এ ছাড়া যাঁরা ৩১ মার্চ, ২০২০ পর্যন্ত কর দেননি, কিন্তু এই মুকুবের সুবিধা নিতে চান, তাঁদের ক্ষেত্রে ৩১ আগস্ট, ২০২০ পর্যন্ত সময় দেওয়া হল। এই সময়ের মধ্যে ওই পুরনো কর মিটিয়ে দিলে তাঁদের জরিমানা দিতে হবে না। অর্থাৎ, ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ট্যাক্স মকুব, পারমিট ফি মকুব, অ্যাডিশনাল ট্যাক্স মকুবের সুবিধার সঙ্গেই পুরনো কর মিটিয়ে দিলে জরিমানা মুকুবের সুবিধাও পাওয়া যাবে।

আলাপনবাবু বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে এ দিনের রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমরা বাস পিছু ১৫ হাজার টাকার সরকারি ভর্তুকির কথা বলেছিলাম। বাসমালিকদের প্রস্তাব মতো আমরা এই পদক্ষেপগুলি নিয়েছি। ওঁদের প্রস্তাব মতোই অর্থ দফতর এই সিদ্ধান্তে অনুমোদন দিয়েছে। ওটার বদলে এটা হয়ে গেল আর কী”!

এক দিকে করোনা সংকট, অন্য দিকে ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী ডিজেলের দামের জোড়া ফোলায় বিদ্ধ হয়ে বাসমালিকরা দীর্ঘ দিন ধরেই ভাড়া বাড়ানোর দাবি তুলে আসছেন। সাময়িক স্বস্তি দিতে রাজ্য সরকারের এ দিনের ঘোষণা তাঁদের কতটা খুশি করবে, সেটাই দেখার!

Continue Reading

রাজ্য

প্রয়াত বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী

বৃহস্পতিবার বেলা ১.৪৫টায় তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্য়াগ করেন।

শ্যামল চক্রবর্তী। ফাইল ছবি

কলকাতা: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী (Shyamal Chakraborty) প্রয়াত হলেন। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার বেলা ১.৪৫টায় তিনি শেষ নি:শ্বাস ত্য়াগ করেন।

জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে উল্টোডাঙার একটি নার্সিংহোমে গত মাসের শেষের দিকে ভরতি হয়েছিলেন বর্ষীয়ান নেতা। সেখান থেকে তাঁকে বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। গত শুক্রবার তাঁর কন্যা ঊষসী সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টে জানান, শ্যামলবাবুর নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাস (Coronavirus) পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়, গত রবিবার রাতে তাঁর অবস্থার কিছুটা অবনতি হয়। তাঁকে ভেন্টিলেটর সাপোর্ট দিতে হয়। এর পর সোমবার শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলেও, ফের তাঁকে ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রাখা হয়। তারপর থেকেই শারীরিক অবস্থার ক্রমাগত অবনমন হতে শুরু করে।

প্রসঙ্গত, ঊষসী ফেসবুক পোস্টে আগেই জানিয়েছিলেন, প্রবীণ নেতা ও প্রাক্তন মন্ত্রীর ফুসফুসে সংক্রমণ ছিল। এর ফলে আগেও তিনি বহুবার সমস্যায় ভুগেছেন। তবে এ বার চিকিৎসা করাতে হাসপাতালে ভরতি হওয়ার পর করোনা সংক্রামিত হওয়ার আশঙ্কার কথাও তিনি জানান।

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে অসংখ্য প্রতিবন্ধকতাকে পরাজিত করেছেন, কিন্তু করোনাকে হারিয়ে আর বাড়ি ফেরা হল না রাজ্যের প্রাক্তনপরিবহণ মন্ত্রীর। মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া রাজনৈতিক মহলে।

পড়তে পারেন: বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী করোনা পজিটিভ, সাহায্য প্রার্থনা কন্যা ঊষসীর

Continue Reading

রাজ্য

রেকর্ড সংখ্যক টেস্টের দিন আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড, তবে সংক্রমণের হার কিছুটা কম

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ২৪,০৪৭টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যে কোভিড-আক্রান্তের সংখ্যার ক্রমবর্ধমান যাত্রা লেগেই রয়েছে। যদিও একই সঙ্গে দিন দিন বাড়ছে নমুনা পরীক্ষাও। ফলে আক্রান্তের সংখ্যায় রেকর্ড হলেও সংক্রমণের হার কিছুটা কমে এসেছে। পাশাপাশি সুস্থতা আর মৃত্যুর হারে ইতিবাচক পরিবর্তন অব্যাহত রয়েছে।

রাজ্যের করোনা-তথ্য়

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৮১৬ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮৩,৮০০। ৬১ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১,৮৪৬। রাজ্যে বর্তমানে মৃত্যুহার ২.২০ শতাংশে রয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ২,০৭৮ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৮,৯৬২ জন। রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২২,৯৯২।

রাজ্যে সুস্থতার হার এখন বেড়ে হয়েছে ৭০.৩৬ শতাংশ। মোট রোগীর মধ্যে সক্রিয় রোগীর হার আরও কিছুটা কমে ২৭.৪৪ শতাংশ হয়েছে।

উত্তর ২৪ পরগনা পেছনে ফেলল কলকাতাকে

এই প্রথম বার উত্তর ২৪ পরগনায় কলকাতার থেকে বেশি মানুষ কোভিডে আক্রান্ত হলেন। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৬৫ জন আর উত্তর ২৪ পরগণায় ৭০৯ জন।

কলকাতায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা মোটের ওপরে অপরিবর্তিত। তবে শহরে এ দিন সক্রিয় রোগীর সংখ্যা বেশ কিছুটা কমেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় শহরে সুস্থ হয়েছেন ৫৯৫ জন। কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৫,২০২। সুস্থ হয়েছেন ১৭,৫৬১। মৃত্যু হয়েছে ৮৬০ জনের। শহরে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৬,৭৮১ জন।

উত্তর ২৪ পরগণায় বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৮,১৪০। তবে এর মধ্যে এই জেলায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২,২৮৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪১৬ জনের। এই জেলায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৫,৪৩৭ জন।

এ দিন হাওড়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৯৩ জন, যা এই জেলার ক্ষেত্রে দৈনিক সর্বোচ্চ। যদিও একই দিনে সুস্থ হয়েছেন ২২৯ জন। অন্য দিকে দক্ষিণ ২৪ পরগণা আর হুগলিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৬ আর ১৩১ জন।

দুই বর্ধমানে আর পূর্ব মেদিনীপুরে আক্রান্তের সংখ্যায় বড়ো ‘লাফ’

উল্লেখিত তিন জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ২৭২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে পূর্ব মেদিনীপুরে ১১২, পূর্ব বর্ধমানে ৭০ আর পশ্চিম বর্ধমানে ৯০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে পূর্ব বর্ধমানে ৭৩ জন সুস্থ হয়েছেন। ফলে এই জেলায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যা কিছুটা কমেছে।

এ ছাড়া নদিয়ায় ৬৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় করোনায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যায় উদ্বেগজনক কোনো বৃদ্ধি নেই। বেশ কিছু দিন পর ঝাড়গ্রামে নতুন আক্রান্তের সন্ধান মেলেনি।

উত্তরবঙ্গে ৮ জনের মৃত্যু কোভিডে

গত ২৪ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গের ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে কোভিডের কারণে। এর মধ্যে দার্জিলিং জেলারই চার জন।

সব থেকে বেশি আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে মালদায় (১৪৪)। এর পর রয়েছে দক্ষিণ দিনাজপুর (১০২)। দার্জিলিং জেলায় নতুন করে ৫৯ জন আক্রান্ত হলেও সুস্থ হয়েছেন ৬৩ জন।

আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে জলপাইগুড়ি আর উত্তর দিনাজপুরে। তবে আলিপুরদুয়ার আর কোচবিহারে একসঙ্গে ৮৬ জন কোভিডে আক্রান্ত হয়েছে।

বুধবারের কলকাতা। ছবি: রাজীব বসু।

লকডাউনে থাকল গোটা রাজ্য

আগস্টের প্রথম লকডাউন পালিত হল বুধবার। জুলাইয়ের তিনটে লকডাউনের মতো এ দিনও নিজেদের ঘরবন্দি করে রাখলেন রাজ্যবাসী। রাস্তাঘাট ছিল শুনশান। বাজার-দোকান বন্ধ থাকার ফলে কোথাওই সে ভাবে ভিড় নজরে পড়েনি। যদিও এ দিনও লকডাউন অমান্যকারীদের শায়েস্তা করতে হয়েছে পুলিশকে।

লকডাউনের মধ্যেও অবশ্য এ দিন রাজ্যের কিছু কিছু জায়গায় রামপুজোর আয়োজন করে বিজেপি। তবে বড়ো কোনো মিছিল করা হয়নি।

নমুনা পরীক্ষার তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ২৪,০৪৭টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে, যা এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ। এর ফলে রাজ্যে মোট ১০ লক্ষ ৩ হাজার ২৭টি নমুনা পরীক্ষা হল। রাজ্যে বর্তমানে প্রতি দশ লক্ষ মানুষে ১১,১৪৫ জনের করোনা পরীক্ষা হচ্ছে।

উল্লেখযোগ্য বিষয় হল রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হার কিছুটা কমেছে। সপ্তাহ দুয়েক আগে এটা বিপজ্জনক জায়গায় চলে গিয়েছিল। দৈনিক সংক্রমণের হার পৌঁছে গিয়েছিল ১৬.৩১ শতাংশে। মঙ্গলবার দৈনিক সংক্রমণের হার ছিল সাড়ে ১২ শতাংশ। বুধবার সেটা কিছুটা কমে এসেছে ১১.৭১ শতাংশে।

Continue Reading
Advertisement
দেশ9 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৫৬২৮২, সুস্থ ৪৬১২১

গাড়ি ও বাইক1 day ago

পেট্রোলচালিত গাড়ি ‘এস-ক্রস’ বাজারে নিয়ে এল মারুতি সুজুকি

ক্রিকেট1 day ago

আইপিএলের নিয়মাবলি: গুচ্ছের টেস্টিং, চলা-ফেরায় নিয়ন্ত্রণ, একটি দলের জন্য একটি হোটেল

ক্রিকেট1 day ago

অঘটন! ৩২৯ তাড়া করে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হারাল আয়ারল্যান্ড

দেশ1 day ago

রুপোর ইট দিয়ে রামমন্দিরের শিলান্যাস করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

ক্রিকেট2 days ago

বিতর্কের মধ্যেই আইপিএলের সঙ্গত্যাগ করল চিনা সংস্থা ভিভো

রাজ্য3 days ago

লকডাউনের সূচি ফের বদলাল রাজ্যে

প্রযুক্তি1 day ago

শাওমি, বাইডু-সহ আরও বেশ কয়েকটি চিনা সংস্থার অ্যাপ নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা18 hours ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা6 days ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা1 week ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা3 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 weeks ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

নজরে

Click To Expand