নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁকুড়া: রাজ্যের অন্যান্য অংশের সঙ্গে বাঁকুড়া জেলা জুড়ে মহাসমারহে জগদ্ধাত্রীপুজো অনুষ্ঠিত হচ্ছে। চিরাচরিত রীতিনীতি মেনেই ইন্দাসের বামনিয়া শ্রীসারদা সেবাশ্রমের জগদ্ধাত্রীপুজোয় অনুষ্ঠিত হল কুমারীপুজো। অন্যান্য বছরের মতো এ বছরও শনিবারের এই বিশেষ দিনে এক সঙ্গে ২১ জন কুমারীকে পুজো করা হল। কথিত আছে, সারদা মায়ের উপস্থিতিতে স্বামী বিবেকানন্দ নিজে বেলুড়ে কুমারীপুজো করেছিলেন।

Kumari-Puja

বামনিয়া শ্রীসারদা সেবাশ্রমের কুমারীপুজোয় অসংখ্য ভক্ত সমাগম হয়। বাঁকুড়ার শ্যামসুন্দর, দুর্গাপুর-বর্ধমান থেকেও এ দিন কুমারীপুজোয় অংশ নিতে অসংখ্য মানুষ এসেছেন। দুর্গাপুরের প্রাপ্তি পাল, বর্ধমানের আত্রেয়ী পাল শ্যামসুন্দরের সুপর্ণা চক্রবর্তীরা নতুন শাড়ি আর গয়নাতে মা জগদ্ধাত্রীর প্রাণ পান। বর্ধমান নিবাসী আত্রেয়ী পালের মা বৈশাখী পাল বলেন, এক অনন্য অভিজ্ঞতা। স্বয়ং মায়ের আর্শীবাদ পেয়েছে মেয়ে। খুব গর্ব বোধ হচ্ছে।


আরও পড়ুন: এই প্রথম হৃদযন্ত্রের সফল প্রতিস্থাপন হল সরকারি হাসপাতালে


আশ্রমের অধ্যক্ষ স্বামী আত্মানন্দ মহারাজ বলেন, “২০১৫ সাল থেকে আমাদের আশ্রমে জগদ্ধাত্রীপুজো অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কলকাতা নিবাসী জনৈক ক্ষুদিরামবাবু এই পুজোতে আর্থিক সাহায্য করেন। আমাদের পুজোর বিশেষত্ব হল এই ২১ জন কুমারীকে নিয়ে কুমারীপুজো। তিনি আরও বলেন, পুজো উপলক্ষে নরনারায়ণ সেবা ও দুস্থ মানুষের বস্ত্র দান করেন। স্থানীয় বিধায়ক গুরুপদ মেটে ও ভক্তদের আর্থিক সাহায্য এই অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here