tourist dead

নিজস্ব সংবাদদাতা, গুয়াহাটি: অরুণাচল প্রদেশে খাদে গাড়ি পড়ে মারা গেলেন কলকাতার তিন পর্যটক। এঁদের মধ্যে দু’ জন মহিলা। দুর্ঘটনাটি ঘটে শনিবার দুপুর আড়াইটে নাগাদ। পুলিশ ও সেনা সূত্রে এই খবর পাওয়া গিয়েছে।

এ দিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী প্রেমা খান্ডু চিন সীমান্তে বুমলা সফরে গিয়েছিলেন। তাই সকালের দিকে বুমলা অভিমুখে পর্যটকদের কোনো গাড়ি ছাড়া হয়নি। বেলা বাড়ার পর পর্যটকদের গাড়ি ছাড়া হয়। বুমলা থেকে তাওয়াং ফেরার পথে একটি টাটা সুমো গাড়ি পাহাড় থেকে খাদে গড়িয়ে পড়ে বলে তাওয়াং-এর ওসি কে এম দাস জানান। গাড়িতে মোট সাত জন আরোহী ছিলেন। এঁদের মধ্যে লিপি ভট্টাচার্য, বটুকনাথ ভট্টাচার্য ও শিবানী নামে তিন জন ঘটনাস্থলেই মারা যান। লিপিদেবী ও বটুকবাবুর মেয়ে সারণি এবং গাড়ির চালক-সহ চার জনকে তাওয়াং সেনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে এঁদের মধ্যে দু’ জনকে তেজপুর সেনা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গাড়িটি দুর্ঘটনায় পড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেনাবাহিনী উদ্ধারকাজে নেমে যায়। তারা গাড়িটি টেনে ওপরে তোলে। মৃতদেহগুলি উদ্ধার করে এবং আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। পুলিশ জানিয়েছে, বুমলা-তাওয়াং রাস্তা যথেষ্ট চওড়া। এই চওড়া রাস্তায় কী ভাবে দুর্ঘটনা ঘটল তা জানতে গাড়িটি পরীক্ষা করে দেখা হবে। কাল রবিবার ময়নাতদন্তের পর দেহগুলি গুয়াহাটি পাঠানো হবে বলে পুলিশের সূত্রে জানানো হয়েছে।

লিপিদেবীদের আত্মীয় সন্দীপ গঙ্গোপাধ্যায় কলকাতা থেকে জানান, গার্ডেনরিচ-মেটিয়াবুরুজ অঞ্চলের ২৪টি পরিবার এক সঙ্গে অরুণাচল সফরে এসেছিলেন। তাঁরা এ দিন সন্ধ্যায় সারণির ফোন থেকে এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনার খবর জানতে পারেন।

ছবি সেনাসূত্রে পাওয়া

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here