কলকাতা: কলকাতার গণ্ডি পেরিয়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এখন বিভিন্ন জেলায় ছড়িয়ে গিয়েছে। ঠিক সেই কারণেই সামগ্রিক ভাবে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ এখনও ঊর্ধ্বমুখী। কিন্তু স্বস্তির পরিসংখ্যান পাওয়া যাচ্ছে দৈনিক মৃত্যুহার এবং বাড়িতে চিকিৎসাধীন থাকা মানুষের হারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৬৭ জন। বেড়েছে সংক্রমণের হারও। প্রতি একশো টেস্টে ১৯ জনেরও বেশি রোগীর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। কিন্তু এর পরেও একটা জিনিস প্রমাণিত হয়ে যায় কোভিড এখন গুরুতর রোগ নয়। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে মারা গিয়েছেন মাত্র ৫ জন। অর্থাৎ সংক্রমণের নিরিখে দৈনিক মৃত্যুহার ছিল মাত্র ০.১৬ শতাংশ।

দুঃখের ব্যাপার হল কোভিডের মৃতের হিসেব রাখতে গিয়ে অন্যান্য রোগে কতজন মারা যাচ্ছে তার হিসেব রাখা হয় না। তা হলে হয়তো দেখা যাবে সেখানে মৃত্যুহার আরও বেশি।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩০ হাজার ৪৩ জন। এর মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭৩৭ জন, যা মোট সক্রিয় রোগীর ২.৪৫ শতাংশ। অর্থাৎ, সাড়ে ৯৭ শতাংশের কিছু বেশি রোগী বাড়িতেই চিকিৎসা করাচ্ছেন এবং সেরে উঠছেন। ধীরে ধীরে গতি পাচ্ছে সুস্থতার সংখ্যাও। রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮৭৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন সংক্রমণ বেড়েছে ১.২৫ শতাংশ। বিপরীতে সুস্থতার সংখ্যাটি বেড়েছে ১২.৬৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় সংক্রমণ কিছুটা বেড়ে ৬৫৩ জন হয়েছে। তবে কলকাতা বা শহরতলীর জেলাগুলোর থেকে রাজ্যের অন্যান্য জেলায় সংক্রমণ বৃদ্ধির হার এখন বেশি। এর মধ্যে সংক্রমণ সব থেকে বেড়েছে বীরভূমে। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ২৪৯ জন।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন