injured women labourers

নিজস্ব প্রতিনিধি, জলপাইগুড়ি: বিনা মেঘে বজ্রপাত নয়, বরং মেঘ-বৃষ্টি সহ বজ্রপাত। যার জেরে আহত উনচল্লিশ জন মহিলা চা-শ্রমিক। ডুয়ার্সের পলাশবাড়ি চা বাগানের ঘটনা।

সোমবার দুপর তিনটে। হালকা বৃষ্টি হচ্ছিল। সবে চা পাতা তোলার কাজ শেষ হয়েছে বাগানের ৮ নং সেকশনে। একটি শেডের নীচে তখন চা-পাতা ওজন করার কাজ চলছিল। সেই সময় শেডের কাছেই বিকট শব্দে বজ্রপাত হয়। তিন জন মহিলা শ্রমিক বেশ কিছুটা ঝলসে যান। অনেকে আতঙ্কে অসুস্থ হয়ে পড়েন। ভয়ে পালাতে গিয়েও বেশ কয়েক জন আহত হন। তড়িঘড়ি প্রথমে তাঁদের বানারহাট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতাল সুপার চঞ্চল রক্ষিত জানিয়েছেন, আহতদের বেশির ভাগই বুকে ব্যথা বা হাত-পায়ে ক্ষত নিয়ে ভর্তি হয়েছেন।

আরও পড়ুন বজ্রপাতের সময় কী ভাবে রক্ষা করবেন নিজেকে? নজর রাখুন এই তথ্যগুলিতে

সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর দশ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়। গুরুতর আহত পাঁচ জনকে বীরপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে এবং ন’ জনকে মালবাজার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহতদের দেখতে যান নাগরাকাটার বিধায়ক শুক্রা মুণ্ডা। তিনি জানিয়েছেন, আহতদের চিকিৎসায় সমস্ত রকম সাহায্য করবে রাজ্য সরকার।

এ দিকে ঘটনার আতঙ্ক এখনও পিছু ছাড়েনি মহিলা চা-শ্রমিকদের। হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে আশা গোরা নামে এক শ্রমিক জানিয়েছেন, এর কম ভয়ংকর অভিজ্ঞতা তার প্রথম। আতঙ্কে মুখের ভাষা হারিয়েছেন সুমিত্রা বারাইক, বালা গোপ, গীতাঞ্জলি সাউ এর মতো শ্রমিকরা।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন