দৈনিক সংক্রমণ বাড়লেও পুজোর মুখে মোটের ওপর স্থিতাবস্থা পশ্চিমবঙ্গের করোনাগ্রাফে

0

কলকাতা: পুজো বাকি আর মাত্র সপ্তাহ তিনেক। গত বছর ঠিক এই সময়ই পশ্চিমবঙ্গে কার্যত লাগামছাড়া হয়ে গিয়েছিল করোনা পরিস্থিতি। সেই তুলনায় দেখতে গেলে পরিস্থিতি এ বার অত্যন্ত ভালো। সংক্রমণ এবং তার হার, আগের দিনের তুলনায় বাড়লেও মোটের ওপরে পরিস্থিতিতে স্থিতাবস্থাই রয়েছে।

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি

স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮৩ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ লক্ষ ৬৩ হাজার ৩৯৩।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬৮৭ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৫ লক্ষ ৩৬ হাজার ৯৭৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১৮ হাজার ৬৭৭ জন। রাজ্যে মৃত্যুহার রয়েছে ১.২০ শতাংশে।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৭ হাজার ৭২৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জন সক্রিয় রোগী কমেছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার রয়েছে ৯৮.৩১ শতাংশ।

দৈনিক সংক্রমণের হার কিছুটা বাড়ল

সংক্রমণের দাপট কতটা রয়েছে সেটা ভালো করে বুঝতে গেলে দৈনিক সংক্রমণের হারের দিকে তাকাতে হয়। প্রতি ১০০ টেস্টে কত জনের রিপোর্ট পজিটিভ হচ্ছে, সেটাকেই সংক্রমণের হার বলে।

যদিও গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণের হার সামান্য বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৩৭ হাজার ১৮১টা নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ১.৮৪ শতাংশ। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৭৮ লক্ষ ৩৪ হাজার ৩২৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণার পরিস্থিতি

সংক্রমণ বেশি থাকলেও দুই জেলার পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এমনকি পুজোর তিন সপ্তাহ আগে যে রকম সংক্রমণের আশংকা করা হচ্ছিল, এখনও সেটা হয়নি।

কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১১২ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ১০৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ১২০ এবং ১১৩ জন। কলকাতায় ৩ আর উত্তর ২৪ পরগণায় ৫ জনের মৃত্যু রেকর্ড করা হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩ লক্ষ ১৫ হাজার ৪৭৮, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ৩ লক্ষ ২৪ হাজার ৩৫৫। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১৩১০ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ১ হাজার ২৭০ জন। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৫০৪৬ এবং ৪৬৯৬ জনের।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গের বাকি ২১টি জেলায় সংক্রমণ কেমন ছিল, দেখে নিন।

১) আলিপুরদুয়ার

নতুন করে আক্রান্ত –৮

সুস্থ হলেন – ৯

২) কোচবিহার

নতুন করে আক্রান্ত –১২

সুস্থ হলেন –১৭

৩) দার্জিলিং

নতুন করে আক্রান্ত –৪৬

সুস্থ হলেন –৩৯

৪) কালিম্পং

নতুন করে আক্রান্ত –৮

সুস্থ হলেন –৭

৫) জলপাইগুড়ি

নতুন করে আক্রান্ত –১৪

সুস্থ হলেন –২৫

৬) উত্তর দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত –৩

সুস্থ হলেন –৪

৭) দক্ষিণ দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত -৪

সুস্থ হলেন –১১

৮) মালদহ

নতুন করে আক্রান্ত -১২

সুস্থ হলেন –১১

৯) মুর্শিদাবাদ

নতুন করে আক্রান্ত -৪

সুস্থ হলেন –৩

১০) নদিয়া

নতুন করে আক্রান্ত -৫৩

সুস্থ হলেন –৪৬

১১) বীরভূম

নতুন করে আক্রান্ত –১০

সুস্থ হলেন –৭

১২) পশ্চিম বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত –৩৩

সুস্থ হলেন –১৬

১৩) পূর্ব বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত -১৯

সুস্থ হলেন –২১

১৪) বাঁকুড়া

নতুন করে আক্রান্ত -২৩

সুস্থ হলেন –২১

১৫) পুরুলিয়া

নতুন করে আক্রান্ত -৬

সুস্থ হলেন –৩

১৬) পূর্ব মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত –৪৬

সুস্থ হলেন –৩৪

১৭) পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত– ৩১

সুস্থ হলেন –৩৪

১৮) ঝাড়গ্রাম

নতুন করে আক্রান্ত –২

সুস্থ হলেন –১০

১৯) দক্ষিণ ২৪ পরগণা

নতুন করে আক্রান্ত –৩৭

সুস্থ হলেন –৪৮

২০) হুগলি

নতুন করে আক্রান্ত –৪৮

সুস্থ হলেন -৪৫

২১) হাওড়া

নতুন করে আক্রান্ত –৪৪

সুস্থ হলেন –৪২

এই জেলাগুলির মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু রেকর্ড করেছে হাওড়া (৩), নদিয়া (১) এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণা (১)।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন