কলকাতা: জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে বাস ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে শুক্রবার নবান্নে চিঠি এবং রাজভবনে স্মারকলিপি দিচ্ছে একটি মালিক সংগঠন।

করোনাভাইরাস লকডাউনের কড়াকড়ি শিথিল হতে ‘নির্দিষ্ট সংখ্যক’ যাত্রী নিয়ে রাস্তায় নেমেছে বেসরকারি বাস। দীর্ঘ দিন ধরেই বাস ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে সরব হয়ে আসছে সংগঠনগুলি। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে বাস ভাড়া নির্ধারণে রেগুলেটরি কমিটি গড়েছিল রাজ্য সরকার। বাস মালিক সংগঠনের তরফে কমিটির কাছে প্রস্তাবিত ভাড়ার তালিকা দেওয়ার পর কেটে গিয়েছে বেশ কয়েক সপ্তাহ। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনো সাড়া মেলেনি।

এমনটাও জানা গিয়েছে, সরকারি কমিটি নতুন ভাড়া এখনও মঞ্জুর না করায় শেষমেশ নিজেরাই ভাড়া বাড়িয়ে ১০, ১৫ ও ২০ টাকা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতার ১৩টি রুটের ৬৮ জন বাস মালিকরা। তবে বাকি রুটের বাসমালিকরা অবশ্য এখনও ভাড়া বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নেননি।

বাস মালিকদের দাবি, একে বাস চালু হওয়ার পরেও কম সংখ্যায় যাত্রী তোলার নিয়মের কারণে দিন দিন বেড়েছে লোকসানের বোঝা। অন্য দিক গত কয়েক সপ্তাহ ধরে একনাগাড়ে বেড়ে চলেছে ডিজেলের দাম। এমনিতেই আনলক-১-এ রাস্তায় বেসরকারি বাসের সংখ্যা ছিল অনেকটাই কম। জ্বালানির দাম বাড়তে সেই সংখ্যা আরও কমছে।

জানা গিয়েছে, এ দিন ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে নবান্নে চিঠি দিতে চলেছে মালিকদের একটি সংগঠন। একই ইস্যুতে রাজ্যপালের কাছেও স্মারকলিপি দেবে তারা। অন্য দিকে ভাড়া সংক্রান্ত পর্যালোচনায় আগামী শনিবার বৈঠকে বসতে চলেছে জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেট।

তবে বেসরকারি বাসের ভাড়া এখনই বাড়াতে সরকার যে নারাজ, তার ইঙ্গিত মিলেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায়। গত বুধবার নবান্নের সর্বদলীয় বৈঠকের পর বাস মালিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “ভাড়া না বাড়ালে বাস নামাব না, সেটা বলার সময় এখন নয়৷ গত তিন মাস আপনাদের কঠিন সময় গিয়েছে, আগামী তিন মাসও হয়তো পরিস্থিতি খারাপ থাকতে পারে। কিন্তু ভেবে নিন না আপনারা সামাজিক দায়বদ্ধতার কথা ভেবে পরিষেবা দিচ্ছেন”।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন