Abhishek and Mamata
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: লোকসভা ভোটের ফলাফল পর্যালোচনা কালীঘাটে নিজের বাড়িতে দলীয় নেতৃত্বকে নিয়ে শনিবার বৈঠকে বসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিন বৈঠক শেষে বেরিয়ে সাংবাদিকদের সামনে দলীয় সাংগঠনিক পদে বড়োসড়ো রদবদলের কথা ঘোষণা করেন তিনি।

মমতা বলেন, তিনি নিজেও পদত্যাগ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু দলীয় নেতৃত্ব অনুমতি না দেওয়ায় তিনি পদত্যাগ করতে পারেননি। তিনি বলেন, “পাঁচ ধরে মাস আমাকে কাজ করতে দেওয়া হয়নি। তিন মাস ধরে নির্বাচন চলেছে। তার আগে দু’মাস ধরে প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ হাতে নিয়েছিল কমিশন। আমি অপমানিত বোধ করছি। সোজা বলেছি, এই পরিবেশে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে থাকতে চাই না, দলের সভানেত্রী থাকতে চাই। পার্টি সিম্বল ম্যাটার করে। চেয়ার আমার কাছে বড়ো কথা নয়। আগেও অনেকবার ছেড়ে এসেছি। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে কাজ করার মানসিকতা নেই। ওরা গ্রহণ করেনি”।

একই সঙ্গে তিনি দলের বিভিন্ন জেলা সভাপতিকে অপসারণ করে নতুনদের নাম ঘোষণা করেন। (বিস্তারিত পড়ুন এখানে ক্লিক করে)। দলের তিন পরাজিত প্রার্থীকে নতুন পদ দেওয়া হয়। মৌসম বেনজির নুর, অমর সিং রাই এবং দীনেশ ত্রিবেদীকে যথাক্রমে করা হয়েছে মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন, উত্তরবঙ্গের চেয়ারম্যান এবং এইচআরবিসির চেয়ারম্যান।

একই সঙ্গে মমতা ঘোষণা করেন, দলের যুব সংগঠনের সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত থেকে বাঁকুড়া এবং পুরুলিয়া জেলা সরিয়ে নেওয়া হল। মমতা বলেন, “অভিষেক সবার সঙ্গে কো-অর্ডিনেশনের কাজ করবে। তাই তাঁর দায়িত্ব কমানো হল”।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here