purulia dead body

ওয়েবডেস্ক: পুরুলিয়া যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে গত বুধবারই টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তিনি লিখেছিলেন, “পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান তৃণমূল কংগ্রেস সরকার কমিউনিস্ট শাসনের হিংসাত্মক উত্তরাধিকারকে অতিক্রম করেছে। সমগ্র বিজেপি এই দুঃখজনক ঘটনার শোক প্রকাশ করেছে এবং মৃত ত্রিলোচন মাহাতোর পরিবারের পাশেই আছে দল। সংগঠন ও মতাদর্শের জন্য তাঁর বলিদান ব্যর্থ হবে না”।

অমিতের টুইটের পর তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বৃহস্পতিবার চ্যালেঞ্জের সুরে দাবি করেন, “এই ঘটনার সঙ্গে তৃণমূলের কোনো কর্মী জড়িত নন। বিজেপির দলীয় কোন্দলেই ওই ঘটনা ঘটেছে। কেউ যদি প্রমাণ করতে পারেন এই ঘটনার সঙ্গে কোনো তৃণমূল কর্মী জড়িত আছেন, তা হলে সঙ্গে সঙ্গে অপরাধীকে জেলে ঢোকানোর বন্দোবস্ত করব”।

পুরুলিয়া থেকে শুভদীপ চৌধুরীর সংযোজন: পুরুলিয়া জেলার বলরামপুর থানার সুপুরডি গ্রামে বুধবার সকালে এক যুবকের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে ওই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায় ।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, ওই যুবকের নাম ত্রিলোচন মাহাতো (২১), তিনি সুপুরডি গ্রামেরই বাসিন্দা ছিলেন। পুরুলিয়ার বিজেপি জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তীর দাবি ,”ত্রিলোচন বিজেপির একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন ও বিজেপি করতেন বলে দুষ্কৃতীরা তাঁকে হত্যা করেছে। আমরা তাঁর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানতে চাই”।

পুলিশ জানায়, প্রথমে বিজেপি সমর্থকেরা দেহ তুলতে দিতে চাননি, মৃতদেহ ফেলে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। পরে পুলিশ মৃত্যুর রহস্য উদ্ঘাটন-সহ খুনিকে গ্রেফতারের আশ্বাস দিলে, গ্রামবাসীরা মৃতদেহটি তুলে দেন। মৃতদেহের পরনের কাপড়ে লেখা ছিল, “বিজেপি করার জন্য হত্যা করা হল।” এর পর পুলিশ তদন্ত শুরু করে এবং মৃতদেহটি  উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here