আরও একটি পুরসভায় পুরবোর্ড গঠন করতে চলেছে তৃণমূল: জ্যোতিপ্রিয়

jyotipriya mallick
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: “২১ জনের বেশি কাউন্সিলার সঙ্গে রয়েছেন, আগামী নভেম্বরেই ভাটপাড়া পুরসভায় অনাস্থা আনতে চলেছে তৃণমূল”। খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের দাবি ঘিরে উত্তাল রাজ্য-রাজনীতি।

গত বুধবার বিজয়া সম্মিলনী উপলক্ষে ভাটপাড়ায় গিয়ে মন্ত্রী এবং উত্তর ২৪ পরগনা তৃণমূল জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় দাবি করেন, ২ তৃণমূল কাউন্সিলার এখনই দলবদল করতে চাইছেন। তবে দীপাবলির পর ভাটপাড়া পুরসভায় অনাস্থা নিয়ে আসা হবে। উন্নয়নমূলক কাজের জন্য বরাদ্দ কোটি কোটি টা্কা কোথায় গেল, সেই প্রশ্নেই বর্তমান পুরবোর্ডের বিরুদ্ধে অনাস্থা নিয়ে আসতে চাইছেন অনেকে। এখনই ২১ জনের বেশি কাউন্সিলার তৃণমূলের সঙ্গে রয়েছে।

ভাটপাড়া পুরসভায় মোট ওয়ার্ড সংখ্যা ৩৫টি। গত লোকসভা ভোটের পরই ভাটপাড়া পুরসভার সমীকরণ উল্টে যায়। বিজেপিতে যোগ দেন একাংশ তৃণমূল কাউন্সিলাররা। তার পর থেকেই ভাটপাড়ার ক্ষমতা দখল নিয়ে শুরু হয়ে টানোপড়েন।

গত ৮ এপ্রিল আস্থাভোট হয় ভাটপাড়া পুরসভায়। সে বার ২২-১১ ভোটের ব্যবধান পুরসভার কর্তৃত্ব রাখে তৃণমূল। কিন্তু পরের আস্থাভোটের ফলাফলে দেখা যায় জয়ী হয়েছে সাংসদ অর্জুন সিং-বাহিনী। গত জুনের প্রথম সপ্তাহের আস্থা ভোটে বিজেপির পক্ষ নেন ২৬ জন কাউন্সিলার। তার পর থেকেই বিজেপির হাতে থাকা ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান হিসাবে রয়েছেন সৌরভ সিং।

প্রসঙ্গত, গত বুধবারই ৩১ ওয়ার্ডের নৈহাটি পুরসভার আস্থাভোটে ২৪-০ ভোটের ব্যবধানে কর্তৃত্ব ধরে রাখে তৃণমূল কংগ্রেস। ওই দিনই জ্যোতিপ্রিয়র ইঙ্গিতবাহী মন্তব্যে আলোচনার কেন্দ্রে চলে আসে ভাটপাড়া পুরসভা।

যদিও ভাটপাড়ার প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক এবং ব্যারাকপুরের বর্তমান বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং এমন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে জানিয়েছেন, কোনো কাউন্সিলারই তৃণমূলে যাচ্ছেন না। তৃণমূল কী করতে পারে, তা আগে করে দেখাক।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.