কলকাতা: সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে সুর চড়াল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বামপন্থী অধ্যাপক সংগঠনগুলি। উপাচার্যের ঘরের সামনে আবুটা ও জুটা যৌথ ভাবে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন। 

অবসর হয়ে যাওয়া তিন অধ্যাপককে ১ ডিসেম্বর থেকে ৩ মাসের জন্য পুনর্নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। প্রফেসর ইন রেসিডেন্স পদে তাঁদের নিয়োগ করার বিরোধিতা করে উচ্চশিক্ষা দফতর। সোমবার সিদ্ধান্ত বাতিল করার কথা জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে চিঠিও পাঠানো হয় দফতর থেকে।    

তারই প্রতিবাদে মঙ্গলবার আন্দোলনে নামেন বামপন্থী অধ্যাপকরা। তাদের দাবি সরকারের এ হেন সিদ্ধান্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধিকার ভঙ্গ হচ্ছে। আগামী দিনে রাজ্যপালের কাছে সমস্ত অধ্যাপকদের সই করা চিঠি পাঠাচ্ছে জুটা ও আবুটা। 

সরকার আইন না মেনে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে দাবি আবুটার। অধ্যাপক পার্থপ্রতিম রায় বলেন, সরকার ১৯৭৬ সালের আইনের বলে, বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত বাতিল করলেও, বাস্তবে ১৯৭৯ সালের বিধির পর ওই আইনের কোনো অস্তিত্ব নেই। তাই এই সিদ্ধান্ত বেআইনি। বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩০০ শিক্ষকের আসন ফাঁকা আছে বলে জানিয়েছে জুটা। সরকারের এই ধরনের সিদ্ধান্তে, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলির সুবিধা হবে বলে দাবি ওই সংগঠনের।

অন্যদিকে আজ বিধানসভায় উচ্চশিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, পুনর্নিয়োগ বাতিল করে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো বিধি ভাঙা হয়নি, তাই এটা কোনোভাবেই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধিকার ভঙ্গ নয়।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here