২৩ বছর পর বাঘের দেখা মিলল বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পে

0
ট্র্যাপ ক্যামেরাই ধরা পড়ল বাঘ। ছবি সৌজন্যে বন্যপ্রাণী শাখা, বন দফতর, পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

আলিপুরদুয়ার: শেষ বার দেখা গিয়েছিল ১৯৯৮ সালে। দীর্ঘ ২৩ বছর পর আবার দেখা মিলল তার। শুক্রবার রাতে বাঘের দেখা মিলেছে আলিপুরদুয়ার জেলার বক্সা টাইগার রিজার্ভে তথা বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের বনাঞ্চলে।

বন দফতরের সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাত ১২টা ২ মিনিটে রাজ্য বন দফতরের পেতে রাখা ট্র্যাপ ক্যামেরায় বাঘের ছবি ধরা পড়ে। বাঘটি পূর্ণবয়স্ক এবং পুরুষ বাঘ বলে বন দফতর সূত্রে খবর।

বন দফতর সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, দিন কয়েক আগেই নদীর ধারে তারা বাঘের পায়ের ছাপ দেখতে পায়। বক্সা অভয়ারণ্যে যে বাঘ রয়েছে সে সম্পর্কে তারা তখন নিশ্চিত হয়। তবে কোন নদীর তীরে বাঘের পায়ের ছাপ দেখা গিয়েছে তা তারা জানায়নি।

এর আগে ১৯৯৮ সালে বক্সায় বাঘ দেখা গিয়েছিল। তবে তা বন দফতরের পাতা ট্র্যাপ ক্যামেরায় নয়। পর্যটকরা দাবি করেছিলেন, তাঁরা বাঘ দেখতে পেয়েছেন। এই প্রথম বন দফতরের পাতা ট্র্যাপ ক্যামেরায় বাঘ দেখা গেল।

বক্সায় ট্র্যাপ ক্যামেরায় বাঘের ছবি দেখতে পাওয়ার খবর পেয়ে উচ্ছ্বসিত রাজ্যের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি জানান, কলকাতা থেকে চার জন আধিকারিক যাচ্ছেন। খুব শীঘ্রই বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পে বাঘশুমারি শুরু করা হবে।

রাজ্যের মুখ্য বনপাল দেবল রায় জানান, এর আগে তাঁরা ওই অভয়ারণ্যে হরিণ ছেড়েছিলেন। রাজ্যের বাইরে থেকে বাঘ আনার পরিকল্পনাও ছিল। তাঁর কথায়, “ওখানে বাঘের অস্তিত্ব আছে জানতাম। তবে এ বার ট্র্যাপ ক্যামেরায় ধরা পড়ায় আমরা খুশি।’’

বক্সায় বাঘ আছে কি না তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বিতর্ক রয়েছে। শেষ পর্যন্ত ওই বনাঞ্চলে বাঘের দেখা মেলায় সবাই খুশি। তবে এরই মধ্যে কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন, এই বাঘ ভুটান থেকে আসেনি তো?

আরও পড়তে পারেন

গোয়ায় গৃহলক্ষ্মী কার্ডের প্রতিশ্রুতি তৃণমূলের, প্রত্যেক গৃহকর্ত্রীকে মাসে ৫ হাজার টাকা

ওমিক্রন সংক্রামিত সন্দেহে বেলেঘাটা আইডি-তে ভরতি বারাসতের বাসিন্দা

আর অপেক্ষা নয়! হাওড়া পুরসভা সংশোধনী বিল রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানোর হুঁশিয়ারি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখরের

দুবাই থেকে চুরি হয়েছিল দিয়েগো মারাদোনার বহুমূল্যের ঘড়ি, চার মাস পর উদ্ধার অসমে

স্ত্রীর অজান্তে তাঁর কল রেকর্ড করা গোপনীয়তার অধিকার লঙ্ঘন, তাৎপর্যপূর্ণ সিদ্ধান্ত হাইকোর্টের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন