আরও দুই গন্ডারের মৃত্যু, অ্যানথ্র্যাক্সের ভয়ে কাঁটা জলদাপাড়া

0

মাদারিহাট (আলিপুরদুয়ার): আরও দু’টি গন্ডারের মৃত্যু হল জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানে। এর জেরে গত ৭২ ঘণ্টায় মৃত গন্ডারের সংখ্যা দাঁড়াল ৫-এ। ফলে অ্যানথ্র্যাক্সের আশঙ্কা ক্রমে জোরালো হচ্ছে।

যদিও গন্ডারের মৃত্যুর কারণ নিয়ে রাজ্যের বন দফতর নিশ্চিত করে কিছু বলছে না। তারা এখনও মেডিক্যাল রিপোর্টের অপেক্ষাতেই রয়েছে। তবে পরিবেশবিদদের অনেকেই মনে করছেন, অ্যানথ্র্যাক্সই মৃত্যুর কারণ।

জানা গিয়েছে, মৃত ৫টি পরিণত বয়স্কের মহিলা গন্ডার। এর মধ্যে চারটির মৃত্যু হয়েছে আলিপুরদুয়ার জেলার সিসামারা বিটে। অপর একটি গন্ডারের দেহ উদ্ধার হয় বুধবার রাতে, মালাঙ্গি বিট থেকে।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে প্রথম দু’টি গন্ডারের মৃত্যুর পরেই নড়েচড়ে বসে বন দফতর। জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানে জারি হয়ে যায় চরম সতর্কতা।

আরও পড়ুন কী হচ্ছে উত্তরপ্রদেশে! উন্নাওয়ের নির্যাতিতাকে ফের গণধর্ষণ

কিন্তু চরম সতর্কতা জারির পরেও আরও তিনটি গন্ডার মারা গিয়েছে। আরও কোনো গন্ডারের মৃত্যু হয়েছে কি না, তা দেখতে হাতির পিঠে চড়ে জাতীয় উদ্যানে নজর রাখছেন বনকর্মীরা।

পাঁচ গন্ডারেরই রক্তের নমুনা জরুরি ভিত্তিতে বেলগাছিয়ার পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। লক্ষণ দেখে অ্যানথ্রাক্স বলে আশঙ্কা করা হলেও, মৃত্যুর আসল কারণ পরীক্ষার পরেই জানতে পারবে বন বিভাগ।

অ্যানথ্র্যাক্স যদি সত্যি প্রমাণিত হয়, তা হলে জলদাপাড়া উদ্যানের কাছে তা ভয়াবহ হতে পারে। শুধু গন্ডারই নয়, এই জঙ্গলে হাতির সংখ্যাও প্রচুর। চিন্তা তাদের নিয়েও। এমনকি রোগগ্রস্ত প্রাণীর সংস্পর্শে এলে বনকর্মীদের শরীরেও এই রোগ বাসা বাঁধতে পারে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.