ন্যায্য বেতনের দাবিতে অবস্থানরত শিক্ষকদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জ!

0
Teachers

ওয়েবডেস্ক: আইসিটি বা ইনফরমেশন কমিউনিকেশন টেকনোলজির অধীনে প্রায় সাড়ে ছয় হাজার শিক্ষক-শিক্ষিকা বিভিন্ন সরকারি ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলে কম্পিউটার শিক্ষক হিসেবে কর্মরত। চুক্তি মতো ন্যায্য বেতনের দাবিতে তাঁরা মঙ্গলবার অবস্থানে বসেন মিন্টো পার্কে নিয়োগকারী সংস্থা আইএলএফএসের দফতরের সামনে। সেখানে তাঁদের উপর লাঠিচার্জের অভিযোগ তুললেন অবস্থানকারীরা। জানা গিয়েছে, এর পরই তাঁরা মিন্টো পার্ক সোজা চলে যান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাকতলার বাড়ির সামনে। সেখানেই ফের তাঁরা অবস্থানে বসেন।

গত বছরের এপ্রিলে চুক্তিভিত্তিক ওই কম্পিউটার শিক্ষকদের অবস্থান বিক্ষোভ নিয়ে উত্তাল হয়ে উঠেছিল রাজ্য রাজনীতি। সে সময় তাঁদের ৩১ মার্চ কর্মচ্যুত হওয়ার নোটিশ দেওয়া হয়। জানা গিয়েছে, এঁরা মাসিক চার-পাঁচ হাজার টাকা ভাতা পান। সে বার তাঁদের দাবি ছিল, অবিলম্বে কাজ ফিরিয়ে দিতে হবে। ৬০ বছর পর্যন্ত কাজের নিশ্চয়তা দিতে হবে। ওয়েস্টবেঙ্গল স্কুল কম্পিউটার টিচার ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে এই বিক্ষোভে অংশ নিতে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ‌ট্টোপাধ্যায়ের বাসভবনের সামনে এসে জড়ো হন তাঁরা। পরে শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপে বাড়ানো হয় তাঁদের চু্ক্তির মেয়াদ।

অবস্থানকারীরা জানান, আইসিটির এই প্রকল্প প্রথমে ছিল রাজ্য সরকার মনোনীত সংস্থা ওয়েবেলের হাতে। পরে ওয়েবেল ওই দায়িত্ব হস্তান্তর করে আইএলএফএস নামে ওই সংস্থাকে। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের দাবি, চুক্তি মতো তাঁদের হাতে বেতন দেয় না ওই সংস্থা।

[ আরও পড়ুন: নিয়ন্ত্রণরেখার ও পারে পাক সেনার সাতটি চৌকি গুঁড়িয়ে পালটা জবাব ভারতের ]

তাঁদের দাবি, বছর প্রতি তাঁদের ৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা দেওয়ার চুক্তি হয়েছিল। কিন্তু বর্তমানে তাঁরা খুব বড়োজোর চার-পাঁচ হাজার টাকা হাতে পান প্রতি মাসে। কিন্তু কম্পিউটার শিক্ষার পাশাপাশি তাঁদের দিয়ে অন্যান্য কাজও করিয়ে নেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। স্বাভাবিক ভাবেই চুক্তি মতো ন্যায্য বেতনের দাবিতে তাঁরা এ দিন আইএলএফএস-এর দফতরের সামনে যখন অবস্থান করছিলেন, তখন সংস্থা কর্তৃপক্ষের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, বেতন কোনো মতেই বাড়ানো হবে না। এর পরই তাঁদের উপর লাঠিচার্জ করা হয় বলে অভিযোগ করেছেন অবস্থানকারী শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন