Narendra Modi

ওয়েবডেস্ক: প্রস্তাবিত রথযাত্রা (গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা) নিয়ে আদালতের মুখাপেক্ষী হয়ে বসে না থেকে আগামী লোকসভা ভোটের প্রচার শুরু করে দিতে চাইছে রাজ্য বিজেপি। দলীয় সূত্রে খবর, গত পঞ্চায়েত ভোটের সময় ঠিক যে ভাবে রাজ্যের শাসক-বিরোধী অংশকে কাছে টেনে বিজেপি সাফল্য পেয়েছিল, আগামী লোকসভা ভোটেও একই ধরনের পরিকল্পনা বাস্তবায়নে প্রচারের কাজ এখন থেকেই শুরু করা দরকার। আর সেই কর্মসূচিরই সূচনা হতে পারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপস্থিতিতেই।

গত ২০১৮-র মাঝামাঝি সময় থেকেই প্রস্তাবিত রথযাত্রা কর্মসূচি নিয়ে অনেকটাই অগ্রসর হয়ে গিয়েছিল বিজেপি। কিন্তু একেবারে শেষপ্রান্তে এসে তা আইনি গেরোয়া আটকে পড়ে। স্বাভাবিক ভাবেই দেশের সাধারণ নির্বাচনের আগে হাতে থাকা ক’মাসে প্রচারের কাজে খামতি রাখতে চায় না গেরুয়া শিবির।

দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, আমরা আশা করছি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রথম সভাটি আগামী ২৯ জানুয়ারিতে আয়োজন করতে সফল হব। ইতিমধ্যেই দিল্লির কাছে যাবতীয় নির্ঘণ্ট অনুমোদনের জন্য পাঠানো হয়েছে। এখনও পর্যন্ত কিছু না হলেও খুব শীঘ্রই দিনক্ষণ জানিয়ে দেওয়া হবে।

Narendra Modi and Amit shah smile

আগামী ১৯ জানুয়ারি ব্রিগেডে রয়েছে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সমাবেশ। সেখানে সারা দেশ থেকেই বিজেপি-বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের উপস্থিত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। ওই সমাবেশের দিন দশেকের মাথায় একই জায়গায় বিজেপি চাইছে প্রধানমন্ত্রীকে দিয়ে সভা করাতে।

[ আরও পড়ুন: কেন পদত্যাগ করেছিলেন আরবিআই গভর্নর, জানালেন মোদী ]

আবার দলীয় সূত্রে এমনটাও জানা গিয়েছে, শুধু ব্রিগেড নয়, চলতি জানুয়ারি এবং আগামী ফেব্রুয়ারিতে মোদীকে দিয়ে কমপক্ষে ২-৩টি সভা করানোর পরিকল্পনা রয়েছে বিজেপির। একই ভাবে পরিকল্পনা রয়েছে দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহকে দিয়ে সভা করানোরও।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন