কলকাতায় ডেঙ্গিতে ফের মৃত্যু, প্লেটলেট ‘অল্পতায়’ ভুগছে হাসপাতালগুলি

0

বৃহস্পতিবার ফের কলকাতায় ডেঙ্গিতে মৃত্যু হল একজনের। মৃতের নাম বাবান ঘোষ। তিনি সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। চিকিৎসকরা ডেথ সার্টিফিকেটে ডেঙ্গির কারণেই যে বাবানের মৃত্যু হয়েছে তা উল্লেখ করেছেন।

রাজ্য ডেঙ্গিতে আক্রান্ত সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২১৭০ জন। বৃহস্পতিবার নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২০০ জন। সরকারি ভাবে মৃতের সংখ্যা ১৫। 

রাজ্যের স্বাস্থ্য-শিক্ষা অধিকর্তা সুশান্ত বন্দ্যোপাধ্যায় জানান,  বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল ছাড়া কলকাতার অন্য হাসপাতালগুলিতে কিছুটা হলেও রুগির চাপ কমেছে। তবে যে ভাবে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তাতে রক্তের প্রয়োজন বাড়ছে। হাসপাতালগুলিতে যাতে পর্যাপ্ত রক্তের ব্যবস্থা থাকে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

জেলা হাসপাতালগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, কোনও ব্যক্তির শরীরে রক্ত পরীক্ষার করার পর ডেঙ্গির জীবাণু ধরা পড়লে তার দ্রুত চিকিৎসা শুরু করতে হবে। পাশাপাশি স্বাস্থ্য দফতরকে এই বিষয়ে দ্রুত রিপোর্ট পাঠাতে হবে।

বৃহস্পতিবার, কলকাতার সরকারি ব্লাড ব্যাঙ্কগুলিকে ডেঙ্গির প্লেটলেটের অভাব ছিল। মেডিক্যাল কলেজ,  ন্যাশানল মেডিক্যাল কলেজ ও মানিকতলা ব্লাড ব্যাঙ্কে এই সঙ্কট দেখা দেয়। এর ফলে ডেঙ্গিতে আক্রান্ত রোগীর পরিবারগুলি সমস্যায় পড়ে। একমাত্র আরজিকর,  এসএসকেএম ও শম্ভুনাথ পন্ডিত মেডিকেল কলেজগুলিতে সীমিত পরিমাণ ডেঙ্গির প্লেটলেট পাওয়া গিয়েছে। বেসকারি ল্যাবগুলিতেও ডেঙ্গির প্লেটলেটের অভাব ছিল।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন