Anubrata Mondal

ওয়েবডেস্ক: কৌশিকী অমাবস্যা উপলক্ষে তারাপীঠে নেমেছে ভক্তের ঢল। রবিবার দুপুরে তারাপীঠে পুজো দিতে যান তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তবে ‘চড়াম চড়াম আওয়াজে’র প্রবক্তা অনুব্রতের যে রূপ এ দিন দেখা গেল তা একেবারেই অচেনা।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি,  বেলা ১টা নাগাদ তিনি সদলবলে পুজো দিতে যান তারাপীঠে। মন্দিরে পূণ্যার্থীর সংখ্যা মাত্রাতিরিক্ত থাকায় তাঁকে ঢোকানো হয় ভিআইপি গেট দিয়ে। মন্দিরের প্রধান পুরোহিতের উপস্থিতিতে পুজো দেন অনুব্রত। তবে বিগ্রহের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি কোনো এক কারণে কাঁদতে শুরু করেন। যা দেখে উপস্থিত অন্যান্যরা হতবাক হয়ে যান। মন্দিরের গর্ভগৃহে প্রায় আধ ঘণ্টা থাকার পর বেরিয়ে আসেন তিনি।

অনুব্রতর এই কান্নার বিষয়টি তখন চাউর হয়ে গিয়েছে। বাইরে বেরিয়ে আসার পর তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয় তিনি কী প্রার্থনা করলেন মায়ের কাছে? উত্তরে তিনি বলেন, “মানুষ যাতে মিথ্যে কম বলে মায়ের কাছে সেই প্রার্থনা করেছি”।

বরাবরই আলো-আঁধারি ভাষায় কথা বলতে পটু অনুব্রত। তাঁর এই উত্তরেও মিলল তারই ছাপ। তিনি এমন মন্তব্যে ঠিক কাকে উদ্দেশ্য করলেন, তা স্পষ্ট নয়।

এ দিন ফুলের মালা ও বস্ত্র দিয়ে পুজো দেন তিনি। বলেন, পশ্চিমবঙ্গের মানুষের সমৃদ্ধি কামনায় তিনি পুজো দিয়েছেন। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্যও আশীর্বাদ প্রার্থনা করেছেন।


আরও পড়ুন: মাঝেরহাটে বিকল্প পথ গড়বে রাজ্য, রেলের সঙ্গে আলোচনা আগামী সোমবার

কিন্তু ঠিক কার উদ্দেশে মিথ্যা কথা প্রসঙ্গ উত্থাপন করলেন তা স্পষ্ট করলেন না সংবাদ মাধ্যমের কাছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন