মুকুলপুত্রের হাত ধরে গেরুয়া হতে চলেছে রাজ্যের দুটি পুরসভা?

0
Subhranshu roy
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: জল্পনা তা হলে শেষ হচ্ছে। মঙ্গলবারই গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে চলেছেন মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু। আর তাঁর হাত ধরে উত্তর ২৪ পরগণার একাধিক পুরসভার কাউন্সিলরও বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন। এমনটা হলে, অন্তত দু’টি পুরসভা তৃণমূলের হাতছাড়া হতে পারে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা।

সোমবার রাতে শুভ্রাংশুর দিল্লিযাত্রা নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছে। শুধু বীজপুরের বিধায়কই নন, তাঁর সঙ্গে দিল্লি গিয়েছেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত এবং নোয়াপাড়ার বিধায়ক সুনীল সিংহ। মনে করা হচ্ছে, মঙ্গলবার এই তিন জন এক সঙ্গে বিজেপি শিবিরে নাম লেখাবেন।

তবে সবার নজর শুভ্রাংশুর দিকেই। কারণ তাঁর হাত ধরে হালিশহর, নৈহাটি, কাঁচরাপাড়া ও কল্যাণী পুরসভার একাধিক কাউন্সিলর গেরুয়া শিবিরে যেতে চলেছেন। সূত্রের খবর, কাঁচরাপাড়ার ২৪ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ১৬ জন উড়ে গিয়েছেন দিল্লিতে। হালিশহরের ২৩ জনের মধ্যে ১৩ জন কাউন্সিলরও যোগ দেবেন বিজেপিতে। এমনকি কল্যাণী ও নৈহাটি পুরসভার একাধিক কাউন্সিলরের সঙ্গে বিজেপির পাকা কথা সারা বলে সূত্রের খবর। অর্থাৎ হালিশহর ও কাঁচরাপাড়া পুরসভায় সংখ্যালঘু হয়ে পড়বে তৃণমূল। কল্যাণী ও নৈহাটি পুরসভার দখল নেওয়ারও দাবি করছে বিজেপি।

আরও পড়ুন জাপানে আততায়ীর হামলায় নিহত ২, আহত ১৭

উল্লেখ্য, ভোটের ফলপ্রকাশের পরের দিনই দলবিরোধী কাজের জন্য শুভ্রাংশুকে সাসপেন্ড করে তৃণমূল। এর পর শুভ্রাংশু মন্তব্য করেন, “তৃণমূল নেতাদের সন্দেহের জেরে যে দমবন্ধকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল তার থেকে মুক্তি পেলাম। এই দলে কিছু করলেও দোষ, না করলেও দোষ।”

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের অক্টোবরে বিজেপিতে যোগ দেন মুকুল রায়। শুভ্রাংশু অবশ্য তখনই রয়ে গিয়েছিলেন তৃণমূলেই। কিন্তু এ বার সত্যি সত্যি বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন মুকুলপুত্র। তবে দলত্যাগবিরোধী আইন থেকে বাঁচার জন্য সম্ভবত বীজপুরের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেবেন তিনি।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন