‘বাবাকে বলো’ লোগো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়, থানায় অভিযোগ দায়ের দিব্যেন্দু অধিকারীর

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: শেষ লোকসভা ভোটের পর ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচি চালু করেছিল তৃণমূল। এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে ‘বাবাকে বলো’!

দাবি করা হচ্ছে, সাংসদ শিশির অধিকারীর ছবি ও মোবাইল নম্বর দেওয়া এই ‘বাবাকে বলো’ লোগো ছড়াচ্ছে তৃণমূল-ই। অবিলম্বে এই প্রচার বন্ধের ব্যবস্থা নিতে কাঁথি থানায় অভিযোগ জানালেন তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। এই প্রচারের বিরুদ্ধে কাঁথি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন দিব্যেন্দু। তিনি শিশিরবাবুর ছেলে এবং রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর ভাই।

আচমকা কেন ‘বাবাকে বলো’?

ঘটনার সূত্রপাত গত মঙ্গলবার। বিধানসভা বাজেট অধিবেশনে শুভেন্দুর প্রতি কটাক্ষ ছুড়ে দেন নৈহাটির তৃণমূল বিধায়ক পার্থ ভৌমিক। তিনি বলেছিলেন, “২০১৯ লোকসভা ভোটে ১৮টা আসন হারিয়ে আমরা একটা কর্মসূচি নিয়েছিলাম। সেখানে বলা হয়েছিল, কন্যাশ্রী, রূপশ্রীর মতো সরকারি প্রকল্পগুলোর সুবিধা না পেলে দিদিকে বলো”।

একই সঙ্গে তাঁর সংযোজন, “দলত্যাগবিরোধী আইন নিয়ে বিরোধী দলনেতাকে বলব, আপনি বাবাকে বলো কর্মসূচি নিন”। এই ঘটনার পর পরই তৈরি হয়ে যায় ওই বিশেষ লোগো। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন কার্যত ভাইরাল।

Shyamsundar

কী অভিযোগ দিব্যেন্দুর?

ওই লোগোতে পদ্ম প্রতীকের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে শিশির অধিকারীর ছবি ও মোবাইল নম্বর। এত ঘনঘন ফোন আসছে যে বিরক্ত হয়ে মোবাইল বন্ধ রেখেছেন অশীতিপর রাজনীতিক।

দিব্যেন্দু দাবি, “অবিলম্বে নেটমাধ্যমে থেকে ওই লোগো সরিয়ে নেওয়াএবং যারা এই লোগো নেটমাধ্যম মারফত ছড়িয়ে দিচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলেছি। অহেতুক বাবাকে বিরক্ত করা হচ্ছে”।

ভোটের আগে শুভেন্দু এবং ছোটো ভাই সৌম্যেন্দু বিজেপিতে যোগ দিলেও দিব্যেন্দুর অবস্থান নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছে। তবে বাবা শিশির অধিকারীর মতোই তাঁর সঙ্গেও যে তৃণমূলের সম্পর্ক ছিন্ন হয়েছে, সেটাও স্পষ্ট। কিন্তু খাতায়-কলমে তাঁরা দু’জনেই এখনও তৃণমূলেরই সাংসদ। অন্য দিকে, ‘বাবাকে বলো’ লোগোয় শিশিরবাবুর ফোন নম্বর উল্লেখ করা নিয়ে নতুন করে জটিলতা দেখা দিলেও তা কিন্তু তাঁর সাংসদ-পরিচিতিতে সহজেই থেকেই দেখা যায়।

আরও পড়তে পারেন: ছালের রাজনীতি আর কত দিন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন