‘খেলার সুযোগ না পেয়ে বিজেপি ছেড়েছি’, আরও খোলসা করলেন বাবুল সুপ্রিয়

0
বাবুল সুপ্রিয়। ফাইল ছবি

কলকাতা: শনিবারে যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূলে। সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, বাংলার মানুষের জন্য কাজের সুযোগ পেতেই তাঁর তৃণমূল-যোগ। রবিবার বিস্তারিত মন্তব্যে জানিয়ে দিলেন, খেলার সুযোগ না পেয়েই বিজেপি ছেড়েছেন।

এ দিন সাংবাদিক বৈঠকে বাবুল বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানাব আমাকে প্লেয়িং ইলেভেনে সুযোগ করে দেওয়ার জন্য। আমি বলেছিলাম, রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস নিচ্ছি। সেটা আবেগ থেকেই মন-প্রাণের কথা। আমি কোনো পোস্টই মুছে দেব না। মোহনবাগানকে ভালোবাসি। কিন্তু যদি মোহনবাগানের হয়ে প্লেয়িং ইলেভেনে চান্স না পাই বা জুনিয়র টিমে সুযোগ দেওয়া হয়, তা হলে সে দলে খেলব না। ছোটো টিমে চলে যাব বা ইস্টবেঙ্গলে চলে যাব”।

তাঁর কথায়, “গত সাত বছর ধরে আমি তৃণমূল স্তর থেকে লড়াই করে উঠে এসেছি। ফলে কারও কিছু প্রমাণ করার নেই। মমতাদিদি, অভিষেক এবং ডেরেক যখন আমার সঙ্গে দিল্লিতে দেখা করেন, তখন আমি ভীষণ ভাবে উৎসাহ পাই। তাঁদের বক্তব্য থেকে উৎসাহিত হয়েই রাজনীতি ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে পিছিয়ে এসেছি”।

বাবুলের কথায়, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন ভারতের অন্যতম নেত্রী। তিনি আমাকে এই সুযোগটা দিয়েছেন। যেটা সত্যি কথা, সেটা বলতেই হবে। অনেকেই প্রিয়-অপ্রিয় প্রশ্ন করবেন। সব প্রশ্নেরই উত্তর দেব। আমি রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে গিয়েছিলাম। আমার ওখানে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে গিয়েছিলাম। জনতার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছিলাম। আমাকে আবার জনতার মধ্যে ফেরার সুযোগ দিয়েছেন মমতাদিদি, অভিষেক। বাংলার মানুষের হয়ে কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন”।

তৃণমূলে যোগ দিলেও বিজেপির সাংসদপদ নিজের কাছে রেখে দেওয়ায় একাংশের কটাক্ষের স্বীকার হচ্ছেন গায়ক-রাজনীতিক। এ দিন জানিয়ে দেন, “বুধবার স্পিকারের সঙ্গে দেখা হলেই সাংসদ পদ ছেড়ে দেব। আসানসোলে যেমন রাস্তায় বসে চা খেয়েছি, তেমনই এক্ষেত্রেও করব। আমাকে দলের হয়ে কাজ করতে হবে। শিখতে হবে। আমি সৌগতদা (রায়)-কে বলছি, তৃণমূলের সংগঠন নিয়ে কথা বলতে, আমাকে সাহায্য করতে। খেলার সুযোগ না পেয়ে বিজেপি ছেড়েছি”।

বাবুলের স্পষ্ট মন্তব্য, “দল বদল করে আমি কোনো ইতিহাস রচনা করিনি। হাজার হাজার দলবদলের ঘটনা রয়েছে। আমাকে কাজ করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে, আমি খুশি”।

এ দিনের সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় বলেন, “মানুষের কাছে ভীষণ গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে বাবুলের। তাই বাবুল আসায় সে দিক থেকে আমরা লাভবান হয়েছি। আমাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অভিষেকের সঙ্গে বাবুলের কথাও হয়েছে। আগামীকাল দলনেত্রীর সঙ্গে বাবুলের কথা হবে। পরশুদিন বাবুল দিল্লি যাবেন, সেখানেও কিছু কথা হওয়ার কথা রয়েছে”।

আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়ুন এখানে:

নতুন মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে সুখজিন্দর সিংহ রন্ধাওয়াকে বেছে নিল পঞ্জাব কংগ্রেস

গা গুলোয়! তৃণমূলে যোগ দেওয়া বাবুল সুপ্রিয়কে লাগাতার কটাক্ষ কবীর সুমনের

আইকোর মামলায় মানস ভুঁইয়াকে তলব করল সিবিআই

ভবানীপুরের ভোটের দিনই রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডেকে পাঠাল দিল্লির আদালত

বিটকয়েন মাইনিং পরিবেশের জন্য বড়োসড়ো বিপদের কারণ, বলছে গবেষণা

পশ্চিমবঙ্গের ছয় জেলায় সক্রিয় কোভিডরোগীর সংখ্যা একশোর কম, একটি জেলায় কুড়িরও কম

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন