তৃণাঙ্কুর নাগ

কলকাতা: বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল বাংলার তরুণ ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় তৃণাঙ্কুর নাগের। শনিবার নারকেলডাঙা কারশেডে কাজ করতে গিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন তৃণাঙ্কুর। বিআর সিংহ হাসপাতালে চিকিৎসা চলার পরে, সোমবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

নারকেলডাঙা কারশেডে গত পাঁচ বছর ধরে কর্মরত ছিলেন তৃণাঙ্কুর। শনিবার ইলেকট্রিক ফিটিংসের কাজ করতে গিয়ে একটি তারে হাত দেন তিনি। সেই সময় তারে ৩০ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ ছিল। মুহূর্তের মধ্যে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ১৬ ফুট ওপর থেকে নীচে পড়েন তিনি। মাথা ফেটে যায়। শরীরের নিম্নাংশ পুড়ে যায়।

এর আগে রেলের বিভিন্ন আধিকারিককে চিঠি দিয়েছিলেন তৃণাঙ্কুর। অনুরোধ ছিল একটাই, যে হেতু তিনি খেলোয়াড়, তাই ওভারহেড তারের কাজ থেকে সরিয়ে তাঁকে অন্য কোনো কাজ দেওয়া হোক। কিন্তু কোনো চিঠিতেই কোনো কাজ হয়নি। এখানেই রেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তাঁর পরিবারেরও। প্রশিক্ষণ না থাকা সত্ত্বেও কেন ওভারহেড তারের কাজে পাঠানো হল, এই ব্যাপারে রেলকে প্রশ্ন করেছেন পরিবারের সদস্যরা। তবে এই ব্যাপারে রেলের তরফ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

অসাবধানতার খেসারত, ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত দুই যুবক

ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু হল দুই যুবকের। সোমবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে রামরাজাতলায়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ট্রেন আসছে, এটা নজর না করেই লাইন দিয়ে হাঁটছিলেন ওই দুই যুবক। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জিআরপি। তবে রেলের অভিযোগ, লাইন পারাপারের জন্য ফুটব্রিজ থাকলেও যাত্রীরা তা শোনে না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here