বাঁকুড়ার ইন্দাসের সরকারি স্কুলের ঘর ভাড়া দেওয়ার অভিযোগ

0
akui union high school
আকুই ইউনিয়ন হাইস্কুল।

ইন্দ্রাণী সেন, বাঁকুড়া: সরকারি বিদ্যালয়গৃহ ভাড়া দেওয়ার অভিযোগ উঠল বাঁকুড়ার ইন্দাসের আকুইয়ে। অভিযোগ, ইন্দাসের আকুই ইউনিয়ন হাইস্কুলের প্রাঙ্গণের পূর্ব দিকে দোতলায় কনফারেন্স রুম হিসাবে যে হলঘরটি ব্যবহার করা হয়, তা বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ভাড়া দেওয়ার ব্যবস্থা হয়েছে।

এ ব্যাপারে আকুই গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে স্কুল ম্যানেজিং কমিটির প্রেসিডেন্টের কাছে লিখিত ভাবে অভিযোগ জানানো হয়েছে এবং অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত বাতিল করার দাবি জানানো হয়েছে।  

ওই বিদ্যালয়ের প্রাক্তন সভাপতি রমাপ্রসাদ সেন বলেন, “দীর্ঘ দিন ধরে এই স্কুলের সঙ্গে যুক্ত। আমার ছেলেমেয়েরা এই স্কুলে পড়াশোনা করেছে। আমাদের গ্রামের ঐতিহ্যবাহী এই স্কুল। এই ধরনের কাজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করবে।”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অভিভাবক ও স্কুলের অন্য শিক্ষকদের বক্তব্য, সামনেই মাধ্যমিক পরীক্ষা। স্কুলে মাধ্যমিকের সিট পড়ে। এই ভাবে ঘর ভাড়া দেওয়া চললে সমস্যা হবে। এ ছাড়া এই ধরনের কাজ ছাত্রছাত্রীদের মনে বিরূপ প্রভাবও ফেলে।

এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুরজিৎ দলুই বলেন, “সদ্য স্কুলে প্রধান শিক্ষক হিসেবে কাজে যোগ দিয়েছি। এই বিষয়ে কিছু জানি না।”

গ্রামবাসীদের অভিযোগপত্র।

স্কুলের প্রেসিডেন্ট তথা প্রাক্তন শিক্ষক স্বপন কুমার সাউ দাবি করেছেন, সমস্ত নিয়ম মেনেই এই কাজ করা হয়েছে।

বাঁকুড়া জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক (মাধ্যমিক) গৌতম চন্দ্র মাল বলেন, “এই বিষয়ে আমি কিছু জানি না। সরকারি বিদ্যালয়ে এই ধরনের কাজ করা যায় না। ওই বিদ্যালয় আমার থেকে কোনো অনুমতি নেয়নি।”

আরও পড়ুন: তাবড় বামপন্থীদের মধ্যেও রয়েছে সাম্প্রদায়িকতার ‘বিষ’: ইতিহাসবিদ

অভিযোগকারী গ্রামবাসী ও অভিভাবকদের দাবি, ঐতিহ্যবাহী স্কুলে এই ধরনের কাজ বন্ধ করতে হবে। ১৫৭ বছরের পুরোনো এই বিদ্যালয়ের পরিবেশ রক্ষার দায়িত্ব সকলের বলে তাঁরা দাবি করেছেন।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন