Bankura
ইন্দ্রাণী সেন

বাঁকুড়া: এত দিন পর্যন্ত যে “রবির আলোয়” আলোকিত হতো ‘হিল হাউস’, রবিবার তা উন্মুক্ত হল সাধারণ মানুষের জন্য। ‘হিল হাউস’ বর্তমানে বাঁকুড়ার জেলা শাসকের বাসস্থান। এত দিন পর্যন্ত যেখানে সাধারণের প্রবেশ ছিল নিষিদ্ধ, রবিবারের পর থেকে জেলায় রবীন্দ্রচর্চার জন্য তা উন্মুক্ত করে দেওয়া হল । উদ্যোক্তা স্বয়ং বাঁকুড়ার জেলাশাসক ডা. উমাশঙ্কর এস।

প্রশ্ন উঠতেই পারে এত জায়গা থাকতে হঠাৎই জেলাশাসকের বাসস্থান কেন! উত্তর পেতে কয়েক দশক পিছিয়ে যেতে হবে।
বিশ্ববিখ্যাত সাংবাদিক বাঁকুড়ার ভূমিপুত্র রামানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের আমন্ত্রণে ১৯৪০ সালে বাঁকুড়ায় এসেছিলেন কবিগুরু। ১-৩ মার্চ বাঁকুড়া শহরের হিল হাউসে অবস্থান করেছিলেন তিনি। কবিগুরুর স্মৃতি বিজড়িত সেই ‘হিল হাউস’-এর দরজা এ দিন “রবির আলোয়” নামের একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কচিকাঁচাদের জন্য উন্মুক্ত হল। অনুষ্ঠানের সূচনা করলেন জেলাশাসক স্বয়ং। রবীন্দ্রনাথের গান-কবিতা-নাচে মুখরিত হল হিল হাউস প্রাঙ্গণ।

Bankura

জেলাশাসক বলেন, আপাতত সপ্তাহে দু’দিন এই সুযোগ পাওয়া যাবে। শিশুরা এখানে রবীন্দ্রচর্চার সুযোগ পাবে। তার জন্য জেলা তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরে যোগাযোগ করলেই হবে। একই সঙ্গে তিনি জানান, আগামী দিনে রবীন্দ্র স্মৃতিধন্য হিল হাউসে একটি রবীন্দ্র গ্যালারি তৈরি করা হবে। ওই প্রস্তাবিত গ্যালারিতে থাকবে এখানে এসে তাঁর ব্যবহার করা জিনিসপত্র, পাশাপাশি থাকবে বেশ কিছু দুষ্প্রাপ্য ছবিও।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here