rasagolla

কলকাতা: রসগোল্লার জন্মভূমি নিয়ে বছর দুয়েক ধরে চলা বাংলা এবং ওড়িশার লড়াই গড়াতে পারে আদালতে। বৃহস্পতিবার রাজ্যের খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রী আব্দুল রেজ্জাক মোল্লা জানিয়ে দিয়েছেন, রসগোল্লার জন্মভূমি নিয়ে ওড়িশার দাবি কোনো ভাবেই মেনে নেওয়া হবে না।

রেজ্জাক মোল্লা এ দিন বলেন, “রসগোল্লার জন্ম বাংলাতেই। আমরা আদালতে আবেদন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আদালতই সিদ্ধান্ত নিক রসগোল্লা কার।”

রসগোল্লা নিয়ে বাংলা এবং ওড়িশার লড়াই শুরু হয় ২০১৫ সালে। সে সময়ে ওড়িশার বিজ্ঞানমন্ত্রী প্রদীপ পানিগ্রাহী জানিয়েছিলেন, ছ’শো বছর আগেও রসগোল্লা ওড়িশায় বানানো হত, এর ‘পাক্কা প্রমাণ’ তাঁর কাছে রয়েছে।

রাজ্য সরকার সূত্রে জানা গিয়েছে, রসগোল্লার জন্মভূমি নিয়ে আবেদনের পাশাপাশি তার ওপরে ‘জিআই ট্যাগ’-এর জন্যও আবেদন করা হবে। রাজ্য সরকারের দাবি, ১৮৬৮ সালে নবীন চন্দ্র দাসের হাত ধরেই রসগোল্লা তৈরি শুরু। রসগোল্লাকে বাংলার ‘ব্র্যান্ড’ মিষ্টি হিসেবে বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ওড়িশা সরকারের পালটা দাবি ছ’শো বছর আগে পুরীতে যাত্রা শুরু রসগোল্লার। তখন ‘ক্ষীর মোহন’ নামে পরিচিত ছিল রসগোল্লা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here