হাওড়া: লোকসভা ভোট যত কাছে আসছে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সংঘাত তত তীব্র করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিছুদিন আগেই কেন্দ্রের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করছেন। এ বার তাজপুর বন্দর নির্মাণ নিয়ে কেন্দ্রের টালবাহানায় ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন, কেন্দ্রের সাহায্য ছাড়াই ওই বন্দরটি নির্মাণ করবে রাজ্য।

প্রথমে একটি বেসরকারি সংস্থাকে দিয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের তাজপুরে এই গভীর সমুদ্র বন্দরটি নির্মাণের পরিকল্পনা করে রাজ্য। কিন্তু পরে সিদ্ধান্ত হয় কেন্দ্র-রাজ্য যৌথভাবে এই বন্দরটি নির্মাণ করবে। বন্দরের ‘টেকনো ইকনোমিক ফিজিবিলিটি রিপোর্ট’ তৈরি করে মন্ত্রিসভাকে দিলে অনুমোদনও মিলে যাবে। ২০১৯ সালের আগেই বন্দর নির্মাণের কাজ শুরু হয়ে যাবে। সিদ্ধান্তের পর তিন বছর কেটে গেলেও নির্মাণের কাজ শুরু হয়নি। এতেই ক্ষুদ্ধ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, কেন্দ্রের সাহায্য ছাড়াই রাজ্য সরকার নিজেই ওই বন্দর নির্মাণ করবে।

[আরও পড়ুন : জানুয়ারির শেষেই কলকাতা-তারাপীঠ এসি বাস পরিষেবা, জানাল এসবিএসটিসি ]

হুগলি নদীর নাব্যতা কমে যাওয়ায় সমুদ্রগামী বড়ো বড়ো জাহাজ কলকাতা বন্দরে নোঙর করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এর ফলে ধাক্কা খাচ্ছে রাজ্যের শিল্পায়ন প্রক্রিয়া। এই বাধা কাটাতেই তাজপুরে সমুদ্রবন্দর নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয়। বন্দরটির পরিকাঠামো গড়তে খরচ হবে ১৬০ কোটি টাকার মতো।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন