30 C
Kolkata
Friday, June 18, 2021

Bengal Corona Update: দৈনিক সংক্রমণে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, কলকাতায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় বড়ো পতন

আরও পড়ুন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যে দিন দিন টেস্টের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। সে কারণে দৈনিক সংক্রমণও আগের দিনের তুলনায় বেড়ে যাচ্ছে। কিন্তু আদতে সংক্রমণের স্থিতাবস্থাই রয়েছে। কারণ সংক্রমণের হারে কোনো বদল নেই। সেটা এখনও স্বাভাবিকের থেকে অত্যন্ত বেশি হলেও, ২৬-এ এপ্রিলের পর থেকে আর বাড়েইনি। সে কারণে রাজ্যের সংক্রমণের একটা স্থিতাবস্থা এসেছে বলে মনে করা হচ্ছে। সংক্রমণ বাড়ছে বলে মৃতের সংখ্যা অত্যন্ত বেশি হলেও মৃত্যুহার হিসেবে তা এক্কেবারেই নগণ্য। রাজ্যবাসীর এখন একমাত্র আশা, সংক্রমণে যেন আগামী দিনে আর না বাড়ে।

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি

এ দিন স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ৪৩১ জন। এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লক্ষ ৩৫ হাজার ৬৬।

Loading videos...
- Advertisement -

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ৪১২ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮ লক্ষ ৮২ হাজার ৩২৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১১ হাজার ৯৬৪ জন।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১ লক্ষ ২২ হাজার ৭৭৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০২ জন সক্রিয় রোগী বেড়েছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার কিছুটা বেড়ে হয়েছে ৮৫.৫৯ শতাংশ। উল্লেখ্য, গত মার্চে ৯৭ শতাংশে পৌঁছে যাওয়া সুস্থতার হারটি টানা কমতে কমতে গত শনিবার দিন ৮৪ শতাংশে এসে গিয়েছিল। রবিবার থেকে ফের তা বাড়তে শুরু করেছে।

দৈনিক সংক্রমণের হার একই রকম

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের পাশাপাশি সংক্রমণের হারেও স্থিতাবস্থা এসে গিয়েছে। যদিও এখনও পর্যন্ত সংক্রমণের হার অস্বাভাবিক বেশি রয়েছে, তবুও আশা করাই যায় আগামী দিনে এই হার দ্রুতগতিতে কমতে শুরু করবে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে টেস্ট হয়েছে ৬০ হাজার ১০৫টি। করোনাকালে এটাই রাজ্যে সর্বোচ্চ দৈনিক নমুনা পরীক্ষা। এর বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ৩০.৬৬ শতাংশ। উল্লেখ্য, গত সপ্তাহের সোমবার এই সংক্রমণের হার ৩৩ শতাংশে উঠে গিয়েছিল। তার পর থেকে এটা কিছুটা কমই রয়েছে। এ যাবতকালে সংক্রমণের হারে এটাই দীর্ঘতম স্থিতাবস্থা চলছে রাজ্যে।

রাজ্যের সামগ্রিক সংক্রমণের হার বর্তমানে রয়েছে ৮.৬৮ শতাংশ। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৭ লক্ষ ৭৭ হাজার ৭১৮টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণায় কমল সক্রিয় রোগী

গত ২৬ এপ্রিলের পর থেকে কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণার দৈনিক সংক্রমণ কার্যত এক জায়গাতেই ঘোরাঘুরি করছে। দশ দিন ধরে সংক্রমণ এক জায়গায় রয়েছে মানে বিশেষজ্ঞরা অনেকেই মনে করছেন এই দুই জেলায় সংক্রমণ সম্ভবত চূড়ার কাছাকাছি চলে এসেছে। এ দিকে গত ২৪ ঘণ্টায় দুই জেলাতেই সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় বড়ো রকমের পতন হয়েছে।

কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩,৮৮৭ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৩,৯২২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ৩,৯৮৭ এবং ৩,৯৪৪ জন। কলকাতায় ৩৩ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ১৫ হাজার ৪১, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ১ হাজার ৩৯৯। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৬ হাজার ২৬৯ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ২৩ হাজার ৫৫৬ জন। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৩,৫৮৮ এবং ২,৯৩৭ জনের।

উল্লেখ্য, কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩৩ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৫৮ জন সক্রিয় রোগী কমেছে।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

রাজ্যের বাকি জেলার করোনা পরিস্থিতি তো ভয়াবহই রয়েছে। কিন্তু সব জেলাতেই গত কয়েকদিন ধরে সংক্রমণে একটা স্থিতাবস্থা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। অন্যদিকে, বেশ কয়েকটি জেলায় দৈনিক সংক্রমণকে ছাপিয়ে যাচ্ছে দৈনিক সুস্থতা। ফলে সেখানে পরিস্থিতির কিঞ্চিৎ উন্নতিও হচ্ছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণা বাদে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের অন্যান্য জেলায় নতুন সংক্রমণ এবং সুস্থতার সংখ্যা কেমন ছিল, দেখে নিন।

১) আলিপুরদুয়ার

নতুন করে আক্রান্ত – ৪৮

সুস্থ হলেন – ৬৪

২) কোচবিহার

নতুন করে আক্রান্ত – ২১৫

সুস্থ হলেন – ১৮১

৩) দার্জিলিং

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৯৮

সুস্থ হলেন – ৪৪৭

৪) কালিম্পং

নতুন করে আক্রান্ত – ৪৫

সুস্থ হলেন – ৪৬

৫) জলপাইগুড়ি

নতুন করে আক্রান্ত – ২০০

সুস্থ হলেন – ২২৮

৬) উত্তর দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ২৭৯

সুস্থ হলেন – ২৯৭

৭) দক্ষিণ দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ১৮৫

সুস্থ হলেন -১৪৩

৮) মালদহ

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৭৫

সুস্থ হলেন – ৬১১

৯) মুর্শিদাবাদ

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৯৩

সুস্থ হলেন – ৬২২

১০) নদিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৮৫২

সুস্থ হলেন – ৬৩৯

১১) বীরভূম

নতুন করে আক্রান্ত – ৭০৫

সুস্থ হলেন – ৭৭২

১২) পশ্চিম বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৮৪২

সুস্থ হলেন – ৮৮৬

১৩) পূর্ব বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৮১০

সুস্থ হলেন – ৩৮৫

১৪) বাঁকুড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৪০০

সুস্থ হলেন – ৩১৫

১৫) পুরুলিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৩১১

সুস্থ হলেন – ২৩৮

১৬) পূর্ব মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৫৯৭

সুস্থ হলেন – ৫২২

১৭) পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৪৬২

সুস্থ হলেন – ২৮৭

১৮) ঝাড়গ্রাম

নতুন করে আক্রান্ত –১১৭

সুস্থ হলেন -৯৪

১৯) দক্ষিণ ২৪ পরগণা

নতুন করে আক্রান্ত – ৯৩৭

সুস্থ হলেন – ৯২১

২০) হুগলি

নতুন করে আক্রান্ত – ৯০৬

সুস্থ হলেন – ৮৩১

২১) হাওড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৯৪৫

সুস্থ হলেন – ৯৫২

স্বস্তির খবর হল দৈনিক সংক্রমণের থেকে সুস্থতার সংখ্যা বেশি হওয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় সক্রিয় রোগী কমেছে আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, মালদহ, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান, হাওড়ায়।

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

- Advertisement -

আপডেট

ভোট-পরবর্তী হিংসার অভিযোগ নিয়ে রাজ্য সরকারকে বিশেষ নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট

‘ভোট পরবর্তী হিংসা’ নিয়ে রাজ্য সরকারের সমালোচনা করে হাইকোর্টের নির্দেশ।

পড়তে পারেন