30 C
Kolkata
Friday, June 18, 2021

Bengal Corona Update: থমকে গিয়েছে নিম্নগামী যাত্রা, পর পর পাঁচ দিন রাজ্যের কোভিডমুক্তির হার ঊর্ধ্বমুখী

আরও পড়ুন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যে করোনা সংক্রমণে লাগাম পড়ার এখনও কোনো খবর নেই। একটাই স্বস্তির খবর হল, সংক্রমণের হারটি আর বাড়ছে না। গত ২৬ এপ্রিল যেটা ৩৩ শতাংশে উঠে গিয়েছিল, সেটা এখন ৩০ শতাংশের আশেপাশে ঘোরাফেরা করছে। যদিও এটাও খুবই বেশি। এর প্রকৃত অর্থ হল এখন প্রতি তিন জনের মধ্যে একজন কোভিড পজিটিভ।

কিন্তু এর মধ্যেও স্বস্তির একটা ব্যাপার রয়েছে। পর পর পাঁচ দিন রাজ্যের কোভিডমুক্তির হার ঊর্ধ্বমুখী। গত মার্চ থেকে যে হারটা কমতে শুরু করে দিয়েছিল, রবিবার থেকে তা ফের বাড়ছে।

Loading videos...
- Advertisement -

উল্লেখ্য, দেশের গড় সুস্থতার হারের থেকে বেশি থেকে রাজ্যের সুস্থতার হার। মার্চে দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আগে পর্যন্ত এই হার ৯৭ শতাংশে পৌঁছে গিয়েছিল। তার পর থেকে তা ক্রমশ কমতে শুরু করে। কমতে কমতে গত ১ মে শনিবার সেটা নেমে এসেছিল ৮৪.৮৬ শতাংশে। কিন্তু তার পরের দিন থেকেই সেটা বাড়তে শুরু করে।

২ মে সুস্থতার হার ছিল ৮৪.৯৪ শতাংশ। ৩ মে সেটা আরও কিছুটা বেড়ে হয় ৮৫.০৬ শতাংশ, ৪ মে আরও কিছুটা বেড়ে রাজ্যের সুস্থতার হার পৌঁছে যায় ৮৫.২৩ শতাংশ। ৫ মে সুস্থতার হার ছিল ৮৫.৪১ শতাংশ এবং সর্বশেষ অর্থাৎ ৬ মে’র বুলেটিন অনুযায়ী রাজ্যের সুস্থতার হার পৌঁছে গিয়েছে ৮৫.৪৯ শতাংশ।

এর মূল কারণ হল গত পাঁচ দিন রাজ্যে যত জন আক্রান্ত হয়েছেন, সুস্থতার সংখ্যাটি তার সঙ্গে রীতিমতো পাল্লা দিয়েছে। এ ছাড়া গত তিন দিন ধরে যে ব্যাপারটা লক্ষ করা যাচ্ছে তা হল সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় এক হাজারেরও কম বৃদ্ধি। এই পরিসংখ্যান দেখে আন্দাজ করা যায় যে সংক্রমণের বৃদ্ধিটা যদি আটকে যায়, তা হলে অবিলম্বেই সেটাকে পেরিয়ে যাবে দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা। কমতে শুরু করবে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা।

আরও পড়তে পারেন Coronavirus Second Wave: সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউনের শরণাপন্ন একাধিক রাজ্য, দেখে নিন তালিকা

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

- Advertisement -

আপডেট

ইমিউনিটি বাড়াতে বাড়িতেই করুন যোগব্যায়াম

নিয়মিত ব্যায়াম করলে শরীরে শ্বেতকণিকার সংখ্যা বাড়ে অর্থাৎ জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা বাড়ে। ফলে চট করে সংক্রমণ হয় না।

পড়তে পারেন