খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে প্রায় ৭০ হাজারের কাছাকাছি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর ফলে, মঙ্গলবারের থেকে বুধবার রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা একটু বেড়েছে। কিন্তু স্বস্তি দিচ্ছে সংক্রমণের হারটি। এই হার পর পর দু’দিন নিম্নমুখী থাকল। মার্চের পর থেকে কোনো দিনও সংক্রমণের হার পর পর দু’দিন নিম্নমুখী থাকেনি।

সংক্রমণ যে হেতু খুব বেশি তাই তুলনামূলক ভাবে মৃতের সংখ্যাও খুব বেশি। কিন্তু মৃত্যুহার এখনও যথেষ্ট কম রয়েছে পশ্চিমবঙ্গে। এর ফলে রাজ্যে সামগ্রিক মৃত্যুহারও ক্রমশ কমে যাচ্ছে।

Loading videos...

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি

এ দিন স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ২০ হাজার ৩৩৭ জন। এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লক্ষ ৫৩ হাজার ১১৭।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৯ হাজার ২৩১ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯ লক্ষ ১১ হাজার ৭০৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। ফলত রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুহার ছিল ০.৬৬ শতাংশ। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১২ হাজার ৭২৮ জন।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১ লক্ষ ২৮ হাজার ৬৮৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১০১১ জন সক্রিয় রোগী বেড়েছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার কিছুটা বেড়ে হয়েছে ৮৬.৫৭ শতাংশ। মঙ্গলবার এই হার ছিল ৮৬.৪২ শতাংশ।

দৈনিক সংক্রমণের হার ২৯ শতাংশে

দেশের অধিকাংশ রাজ্যেই দৈনিক সংক্রমণের হার এখন হুহু করে পড়ছে। পশ্চিমবঙ্গে এখনও সেই পরিস্থিতি আসেনি। কিন্তু গত বেশ কয়েক মাস পর এই প্রথম বারই রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণের হারটি পর পর দু’ দিন কমল।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে টেস্ট হয়েছে ৬৯ হাজার ৮৭৪টি। এর বিপরীতে সংক্রমণের হার ছিল ২৯.১০ শতাংশ। রাজ্যের সামগ্রিক সংক্রমণের হার বর্তমানে রয়েছে ৯.৪৩ শতাংশ। বুধবার পর্যন্ত মোট ১ কোটি ১১ লক্ষ ৬৮ হাজার ৯৪৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণায় স্থিতাবস্থা

ক্রমাগত টেস্টের সংখ্যা বাড়ার পরেও কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণার দৈনিক সংক্রমণ কার্যত এক জায়গাতেই ঘোরাঘুরি করছে। তবে এ দিন উত্তর ২৪ পরগণার সংক্রমণ ৪ হাজারের গণ্ডি অতিক্রম করেছে।

কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৩,৯৮৯ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৪,০৯১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ৩,৯২৬ এবং ৩,৭৮৮ জন। কলকাতায় ৪৪ এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ লক্ষ ৩৮ হাজার ৭৯৩, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ২ লক্ষ ২৫ হাজার ৩৯৫। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২৬ হাজার ৩০০ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ২৪ হাজার ৮৪২ জন। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৩,৭৯৩ এবং ৩,১৪১ জনের।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

রাজ্যের বাকি জেলার করোনা পরিস্থিতি তো ভয়াবহই রয়েছে। কিন্তু সব জেলাতেই গত কয়েক দিন ধরে সংক্রমণে একটা স্থিতাবস্থা লক্ষ করা যাচ্ছে। অন্য দিকে, বেশ কয়েকটি জেলায় দৈনিক সংক্রমণকে ছাপিয়ে যাচ্ছে দৈনিক সুস্থতা। ফলে সেখানে পরিস্থিতির কিঞ্চিৎ উন্নতিও হচ্ছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণা বাদে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের অন্যান্য জেলায় নতুন সংক্রমণ এবং সুস্থতার সংখ্যা কেমন ছিল, দেখে নিন।

১) আলিপুরদুয়ার

নতুন করে আক্রান্ত – ১২৫

সুস্থ হলেন – ৫২

২) কোচবিহার

নতুন করে আক্রান্ত – ১৭৪

সুস্থ হলেন – ২৪১

৩) দার্জিলিং

নতুন করে আক্রান্ত – ৭৪৫

সুস্থ হলেন – ৫৮৬

৪) কালিম্পং

নতুন করে আক্রান্ত – ২৬

সুস্থ হলেন – ৪৫

৫) জলপাইগুড়ি

নতুন করে আক্রান্ত – ৩৮১

সুস্থ হলেন – ৩৩৭

৬) উত্তর দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ১৮৯

সুস্থ হলেন – ২৮৬

৭) দক্ষিণ দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ১৯৪

সুস্থ হলেন – ২৯৩

৮) মালদহ

নতুন করে আক্রান্ত – ২৭৪

সুস্থ হলেন – ৪৯৩

৯) মুর্শিদাবাদ

নতুন করে আক্রান্ত –৫২৭

সুস্থ হলেন – ৪৩২

১০) নদিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ১,১৭১

সুস্থ হলেন – ৮৪৩

১১) বীরভূম

নতুন করে আক্রান্ত – ৯২৮

সুস্থ হলেন – ৭৩৬

১২) পশ্চিম বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৯১২

সুস্থ হলেন – ৯৬৭

১৩) পূর্ব বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত – ৪৭০

সুস্থ হলেন – ৭০৩

১৪) বাঁকুড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ৩৬৭

সুস্থ হলেন – ৪২২

১৫) পুরুলিয়া

নতুন করে আক্রান্ত – ২৫৪

সুস্থ হলেন – ৩৭৩

১৬) পূর্ব মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৮৩৩

সুস্থ হলেন – ৭৩৩

১৭) পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত – ৮৪১

সুস্থ হলেন – ৫১১

১৮) ঝাড়গ্রাম

নতুন করে আক্রান্ত –৯৪৩

সুস্থ হলেন – ৬১৭

১৯) দক্ষিণ ২৪ পরগণা

নতুন করে আক্রান্ত – ১,১৪৯

সুস্থ হলেন – ১,১০৬

২০) হুগলি

নতুন করে আক্রান্ত – ১,২০৩

সুস্থ হলেন – ১,০১৬

২১) হাওড়া

নতুন করে আক্রান্ত – ১২৫৬

সুস্থ হলেন – ১,১১৫

স্বস্তির খবর হল দৈনিক সংক্রমণের থেকে সুস্থতার সংখ্যা বেশি হওয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় সক্রিয় রোগী কমেছে কোচবিহার, কালিম্পং, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহ, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব বর্ধমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.