bimal gurung mamata banerjee
রাজ্য কি এই আবেদনে সাড়া দেবে?

দার্জিলিং: অনুগামীদের প্রবল চাপের মুখে হঠাৎ করে নিজেদের অবস্থান বদল করলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বিমল গুরুংপন্থী নেতৃত্ব। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনায় বসার জন্য আবেদন জানালেন তাঁরা। এই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে ই-মেল এবং মুখ্যসচিবের কাছে হোয়াটসঅ্যাপও করেছেন গুরুং শিবিরের অন্যতম নেতা রমেশ আলে৷ আগামী দু’-একদিনের মধ্যে চিঠি পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

গত বছর জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পৃথক গোর্খ্যাল্যান্ডের দাবিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল পাহাড়। সেই আন্দোলনের নেতৃত্বে ছিলেন বিমল গুরুং। সরকারি সম্পত্তি নষ্ট এবং পুলিশকর্মী খুনের অভিযোগে গুরুংয়ের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানাও জারি হয়। গ্রেফতারি এড়াতে এই মুহূর্তে গা-ঢাকা দিয়েছেন গুরুং। ইতিমধ্যে পাহাড়ের পরিস্থিতি এখন অনেকটাই পালটে গিয়েছে। মোর্চার রাশ এখন গুরুংয়ের হাত থেকে গিয়েছে বিনয় তামাংয়ের হাতে। শান্তি ফিরেছে পাহাড়ে।

আরও পড়ুন দু’দিনের সফরে সোমবার কোচবিহার যাবেন মুখ্যমন্ত্রী, হতে পারে প্রশাসনিক বৈঠক

এই মুহূর্তে নিজের অস্তিত্ব জানান দিতে মরিয়া গুরুং। মাঝেমধ্যেই ভিডিও বার্তা পাঠান তিনি। তবে বৃহস্পতিবার যে শহিদ দিবসের ডাক তিনি দিয়েছিলেন তাতে বিশেষ সাড়া মেলেনি বলেই খবর স্থানীয় সূত্রে। এই আবহেই সম্ভবত আলোচনার আবেদন করলেন তিনি। গ্রেফতারি এড়ানোর জন্যও এটা গুরুংয়ের কোনো চাল কি না, সেই প্রশ্নও থেকে যায়।

এখন দেখার, গুরুং-এর এই প্রস্তাবে রাজ্য সরকার সত্যি রাজি হয় কি না!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here