birbhum

ওয়েবডেস্ক: এ বছরেও উন্নয়নের নিরিখে কেন্দ্রীয় পঞ্চায়েত মন্ত্রকের সেরার পুরস্কার জিতেছে বীরভূম জেলা পরিষদ। ‘দীনদয়াল উপাধ্যায় পঞ্চায়েত স্বশক্তিকরণ পুরস্কার’-এর সেই ফলক এসে পৌঁছোল রাজ্যে। এই নিয়ে পরপর দু’বার এই পুরস্কারে ভূষিত হল পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম। পাশাপাশি রয়েছে পুরস্কার স্বরূপ ৫০ লক্ষ টাকার আর্থিক অনুদানও।

গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের বহুচর্চিত মন্তব্য রাস্তায় উন্নয়ন দাঁড়িয়ে আছে নিয়ে তোলপাড় হয়েছে রাজ্য রাজনীতি। উন্নয়নের বহুবিধ অর্থ নিয়ে ময়দানে নেমেছেন বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব থেকে বুদ্ধিজীবীরাও। তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, আদতে অনুব্রত কোন উন্নয়নের কথা বলেছিলেন তা বোধহয় স্পষ্ট হয়ে গেল কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের এই স্বীকৃতিতেই।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে,  কেন্দ্রীয় পঞ্চায়েত মন্ত্রক এ বার রাজ্যকে মোট ৬টি পুরস্কার দিয়েছে। যার মধ্যে ৪টিই দখলে গিয়েছে বীরভূমের। জেলার রামপুরহাট-২ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতি পুরস্কৃত হয়েছে সামগ্রিক বিকাশের জন্য, ই-গভর্নেন্সের জন্য পুরস্কার পেয়েছে সিউড়ি-২ নম্বর ব্লকের দমদমা পঞ্চায়েত ও সাধারণ বিভাগে পুরস্কার পেয়েছে ইলামবাজার পঞ্চায়েত। গ্রামোন্নয়নে জেলা প্রশাসন যে ভাবে সুনির্দিষ্ট পদ্ধতিতে কাজ চালিয়ে গিয়েছে, তারই ফলশ্রুতিতে এই পুরস্কার। উন্নয়নের বিষয়ে কোনো কিছুর সঙ্গেই আপস করা হয়নি। নিয়মিত ভাবে উন্নয়ন মূলক কাজে এই স্বীকৃতির জন্য কেন্দ্রীয় সরকার ৫০ লক্ষ টাকা অনুদান ঘোষণা করায় আদতে উপকৃত হবেন সাধারণ মানুষ।

উল্লেখ্য, প্রতিবছরই সার্বিক উন্নয়নের নিরিখে রাজ্যের একটি জেলা পরিষদ, পঞ্চায়েত সমিতি, পঞ্চায়েতকে পুরস্কৃত করে কেন্দ্রের পঞ্চায়েত মন্ত্রক।

ছবি: সংবাদ প্রতিদিন থেকে

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here